বুধবার, মার্চ ২০

সব দায়িত্ব নিলাম, শহিদ জওয়ানদের সন্তানরা পড়তে আসুক আমার স্কুলেই : সেহওয়াগ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: খেলোয়াড় জীবনে যতটা বিধ্বংসী ছিলেন, মাইক হাতে ততটাই রসিক। পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পরে এ হেন সেহওয়াগও নিজের ক্ষোভ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি। টুইট করে আগেই শহিদ জওয়ানদের উদ্দেশে নিজের শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন তিনি। এ বার আরও একধাপ এগিয়ে শহিদ জওয়ানদের সন্তানদের পড়াশোনার দায়িত্ব তুলে নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করলেন নজফগড়ের নবাব।

শনিবার টুইট করে সেহওয়াগ বলেন, “আমরা যাই করি সেটা বেশি নয়। কিন্তু আমি অন্তত এটুকু করতে পারি, আমার সেহওয়াগ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে শহিদ সিআরপিএফ জওয়ানদের সন্তানদের পড়াশোনার পুরো দায়িত্ব নিতে পারি। এই দায়িত্ব পেলে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করবো।”

সোশ্যাল মিডিয়া হোক, বা কোনও সাক্ষাৎকার, স্পষ্টবক্তা হিসেবে নাম ভারতের এই প্রাক্তন ওপেনারের। অতীতে অনেকবার মুখ খুলে বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। তবে এ দিনের এই টুইটের পর থেকে তাঁর প্রশংসা শুরু করেছেন নেটিজেনরা। কেউ বলছেন, এই পরিস্থিতিতে সেহওয়াগ যে ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন, তা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য। কেউ আবার বলেছেন, অনেক সেলিব্রিটিরই তো স্কুল, এনজিও রয়েছে। কিন্তু তাঁরা কেউ সেহওয়াগের মতো এগিয়ে আসেননি। সত্যিই বড় মন সেহওয়াগের। কেউ আবার এর মধ্যেই একটু মজা করে লিখেছেন, এতদিনে বীরু দেখিয়ে দিলেন, কেন তাঁকে নজফগড়ের নবাব বলা হয়।

বৃহস্পতিবার পুলওয়ামায় সিআরপিএফ জওয়ানদের কনভয়ে জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিদের আত্মঘাতী হানার পর দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। এই পরিস্থিতিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন সেলিব্রিটি থেকে শুরু করে আম আদমি। গুজরাতের এক ব্যবসায়ী নিজের মেয়ের বিয়ের খাওয়া-খরচ বাবদ রাখা ১৬ লক্ষ টাকা দান করেছেন শহিদ জওয়ানদের পরিবারের উদ্দেশে। বিয়ের ভোজ বন্ধ করে দেশের স্বার্থে এই পদক্ষেপ নেওয়ায় তাঁকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন মানুষ।

এ ছাড়াও পেমেন্ট অ্যাপ পেটিএম নিজেদের অ্যাপে একটি আলাদা ব্যবস্থা করেছে, যার মাধ্যমে এই অ্যাপ ব্যবহারকারীরা সহজেই সিআরপিএফ জওয়ানদের পরিবারের উদ্দেশে টাকা দিতে পারবেন। এই ব্যবস্থার নাম দেওয়া হয়েছে ‘কনট্রিবিউট সিআরপিএফ ব্রেভহার্টস’। এর মাধ্যমে একটা ক্লিকেই নিজের ইচ্ছে অনুযায়ী টাকা দান করা যাবে। এই টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে সিআরপিএফের কাছে। সেখান থেকে শহিদদের পরিবারকে তা দেওয়া হবে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবারের পর থেকে অনেকেই শহিদ পরিবারদের সাহায্য করার ইচ্ছে জানিয়েছিলেন। তাঁরা যাতে এটা করতে পারেন, তার জন্যই এই নতুন ব্যবস্থা করেছে পেটিএম।  

আরও পড়ুন

মেয়ের বিয়ের ভোজ বন্ধ! ১৬ লাখ টাকার পুরোটাই পুলওয়ামার শহিদ জওয়ানদের পরিবারকে দান কনের বাবার

Shares

Comments are closed.