বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২
TheWall
TheWall

জামিন পেয়েও বন্দি থাকবেন চিদম্বরম, রেহাই নেই ইডির মামলায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত দু’মাস দু’দিনে একাধিকবার একাধিক আদালতে তাঁর জামিনের জন্য মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছিলেন কপিল সিব্বল, অভিষেকমনু সিঙ্ঘভিরা। কিন্তু বারবার নাকচ করে দিয়েছিল আদালত। অবশেষে আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি কাণ্ডে সিবিআইয়ের দায়ের করা মামলায় জামিন পেলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। কিন্তু বন্দিদশা কাটছে না তাঁর।

সিবিআই হেফাজত শেষ হওয়ার পর তিহাড় জেলে ছিলেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা। কিন্তু এর মধ্যেই ওই মামলার সমান্তরাল তদন্ত শুরু করে অন্য কেন্দ্রীয় এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। আদালতের অনুমতিতে জেল থেকেই গ্রেফতার করে চিদম্বরমকে নিয়ে যাওয়া হয় ইডি হেফাজতে। এ দিন জামিনের পর ইডি হেফাজতেই থাকতে হবে তাঁকে।

এ দিন ব্যক্তিগত একলক্ষ টাকা বণ্ডে চিদম্বরমের জামিন মঞ্জুর করেছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ভানুমতীর বেঞ্চ। আদালতের নির্দেশ, চিদম্বরম দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। তদন্তকারী অফিসাররা যখন ডাকবেন, তখনই তাঁদের সামনে হাজিরা দিতে হবে প্রাক্তন অর্থ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে।

পি চিদাম্বরমকে হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য তদন্ত সংস্থার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আবেদন মঞ্জুর করে আদালত। পাশাপাশি প্রবীণ কংগ্রেস নেতাকে বাড়ির রান্না করা খাবার, আলাদা সেল, পশ্চিমী কায়দার শৌচাগার, চশমা ও ওষুধ দেওয়ার অনুমতিও দেয় আদালত। আদালত এ দিন স্পষ্ট করে দিয়েছে, এই রায় শুধুমাত্র সিবিআইয়ের দায়ের করা মামলারই। অন্য মামলা যেমন চলছে তেমন চলবে।

গত ২১ অগস্ট রাতে নয়াদিল্লির জোড়বাগের বাংলো থেকে নাটকীয় কায়দায় চিদম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিআই। তারপর থেকেই সিবিআই হেফাজতে ছিলেন প্রাক্তন অর্থ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ৫ সেপ্টেমবর তাঁকে তিহাড়ে পাঠায় আদালত। এর মাঝে জেল থেকে পরিবারের লোকজনের মাধ্যমে একাধিক টুইট করেছেন দক্ষিণী এই নেতা। দেশের অর্থনীতি নিয়ে কটাক্ষ করেছেন মোদী সরকারকে। জানিয়েছেন, নিজেকে নিয়ে তাঁর কোনও উদ্বেগ নেই। তাঁর একটাই চিন্তা, দেশের অর্থনীতির সর্বনাশ হয়ে যাচ্ছে।

পড়ুন দ্য ওয়াল-এর পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

Comments are closed.