মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

দুর্ঘটনায় মৃত ভিখিরির ঝুপড়িতে ১০ লক্ষ টাকার সম্পত্তি, হতবাক পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রেললাইন পার হতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে মারা গিয়েছিলেন বিরজু চন্দ্র আজাদ। গোভান্ডি স্টেশনে ভিক্ষে করতেন তিনি। বিরজুর কোনও আত্মীয় আছেন কিনা তা দেখতে তাঁর এক কামরার ঝুপড়িতে ঢুকে চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের। ব্যাঙ্কে ও বাড়িতে জমানো তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ১০ লক্ষ টাকার বেশি। এই পরিমাণ সম্পত্তি দেখে অবাক হচ্ছেন প্রতিবেশীরাও।

বৃহস্পতিবার গোভান্ডি স্টেশনের কাছে রেললাইন পার হতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়েন বিরজু। তাঁর পরিচয় জানার পর পুলিশ তাঁর ঠিকানা পান। সেইমতো গোভান্ডি বস্তির এক কামরার এক ঝুপড়িতে গিয়ে পৌঁছয় পুলিশ। প্রতিবেশীরা জানান, সেখানে একাই থাকতেন বিরজু। কোনও আত্মীয়র ঠিকানা আছে কিনা তা দেখার জন্য ভিতরে যায় পুলিশ। তারপরেই তারা হতবাক।

পুলিশ সূত্রে খবর, ঘরের ভিতর প্লাস্টিকের বালতি ভর্তি শুধু কয়েন ছিল। বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মী অনেক ঘণ্টা গোনার পর দেখেন সেখানে দেড় লক্ষ টাকার কয়েন রয়েছে। এ ছাড়া বাড়ির ভিতরে বিরজুর ভোটার কার্ড, প্যান কার্ড, আধার কার্ড পাওয়া যায়। একটা প্লাস্টিকের ভিতরে ব্যাঙ্কের কিছু কাগজ ছিল। সেই কাগজ দেখে খবর নিয়ে পুলিশ জানতে পারে ব্যাঙ্কে বিরজুর ৮ লক্ষ ৭৭ হাজার টাকার ফিক্সড ডিপোজিট রয়েছে। অর্থাৎ তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ দশ লক্ষ টাকারও বেশি।

এই খবর পেয়ে অবাক হয়ে যান বিরজুর প্রতিবেশীরাও। ভিক্ষে করে কীভাবে এত টাকা বিরজু করল সেটাই বুখতে পারছেন না তাঁরা। পুলিশ খোঁজ করছে বিরজুর কোনও আত্মীয় রয়েছেন কিনা। তাহলে অন্তত তাঁর জমানো টাকার সুরাহা করা সম্ভব হবে।

 

Comments are closed.