দিল্লির কাছে বন্ধ হল অপ্পো কারখানা, ৬ কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরই সিদ্ধান্ত সংস্থার

১৭

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিল্লির কাছে বৃহত্তর নয়ডায় বন্ধ হল মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা অপ্পোর কারখানা। ওই কারখানায় কর্মরত ছ’জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরই উৎপাদন ইউনিট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় অপ্পো।

শুধু তাই নয়, মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থাটির তরফে বলা হয়েছে, আরও তিন হাজার কর্মীর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছে। তাঁদের রিপোর্ট এখনও আসেনি। একটি বিবৃতিতে অপ্পো জানিয়েছে, সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে কারখানা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুতেই কাজ শুরু হয়েছিল অপ্পোর এই কারখানায়। লকডাউনের ফলে ২৫ মার্চ থেকে বন্ধ ছিল অপ্পোর উৎপাদন। কেন্দ্রীয় সরকার ছাড় দেওয়ার পর মে মাসের প্রথম সপ্তাহে স্যানিটাইজ করার পর কারখানা খোলে অপ্পো। কিন্তু তার মধ্যেই এই বিপত্তি।

এমনিতেই রাজধানী দিল্লির করোনা সংক্রমণ নিয়ে সরকারের মধ্যে গভীর উদ্বেগ রয়েছে। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে দিল্লিতে। রাজধানীতে কন্টেইনমেন্ট জোন সংখ্যাও অনেক। দেশের যে ক’টি মেট্রো শহরে কোভিড সংক্রমণ তীব্র আকার নিয়েছে তার মধ্যে দিল্লি অন্যতম।

এর আগে একাধিক সরকারি দফতর কোথাও আংশিক কোথাও পুরো বন্ধ করতে হয়েছিল। সিল করে দেওয়া হয়েছিল দিল্লিতে অবস্থিত বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের হেড কোয়ার্টার। রাষ্ট্রপতি ভবনেও থাবা বসিয়েছে করোনা। সপ্তাহ দুয়েক আগে আইনমন্ত্রকের এক আধিকারিকের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ার পর শাস্ত্রী ভবনের আংশিক সিল করে দেয় প্রশাসন।

করোনা সংক্রমণ রুখতে লকডাউনের ফলে অর্থনীতিতে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। এর মধ্যেই কেন্দ্র সরকার জানিয়েছে, সতর্কতা নিয়েই কাজ চালু করতে হবে। জাতির উদ্দেশে বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াই জারি রেখেই আগামী দিনে এগিয়ে যেতে হবে। থেমে থাকলে হবে না। গতকাল, রবিবার বিকেলে চতুর্থ দফার লকডাউনের গাইডলাইনও দিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু সেই কোভিড সংক্রমণের ফলেই বন্ধ হয়ে গেল চালু হওয়া অপ্পো কারখানা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More