মঙ্গলবার, মার্চ ১৯

গণতন্ত্রের উৎসবে বুথে আনুন মানুষকে, রাহুল-মমতা সহ গুচ্ছ সেলিব্রিটিকে টুইট মোদীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: উনিশের লোকসভার নির্ঘণ্ট ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই তৃণমূল কংগ্রেস, সপা, বসপার মতো বেশ কিছু দল তাদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে দিয়েছে। এর মধ্যেই এক অভিনব উপায়ে সবাইকে ভোট দিতে আসার জন্য অনুরোধ জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিজেপি বিরোধী প্রধান দুই মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাহুল গান্ধীকে টুইট করে মোদী তাঁদের বলেন, সবাইকে ভোট দিতে উৎসাহিত করুন। এটা গণতন্ত্রের উৎসব। শুধু মমতা, রাহুলই নন, শচীন তেণ্ডুলকর থেকে বিরাট কোহলি, লতা মঙ্গেশকর থেকে অমিতাভ বচ্চন, আমির-শাহরুখ-সলমন খান, রণবীর সিং থেকে অক্ষয় কুমার, এমনকী বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের এডিটরদেরও টুইট করে একই বার্তা দিয়েছেন মোদী। তবে বিভিন্ন ভাবে।

বুধবার সকালে প্রথমেই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে টুইট করে মোদী লেখেন, “আমার অনুরোধ আপনারাও আবেদন করুন, যাতে লোকসভা নির্বাচনে যত বেশি সংখ্যক সম্ভব মানুষ ভোট দিতে আসেন। যত বেশি মানুষ আসবেন, ততই আমাদের গণতন্ত্রের পক্ষে ভালো।” তবে শুধু মমতা বা রাহুলই নন, তাঁর এই টুইট বিরোধী জোটের অনেক নেতা যেমন মায়াবতী, অখিলেশ যাদব, এম কে স্ট্যালিন, শরদ পাওয়ার, তেজস্বী যাদবের উদ্দেশেও ছিল।

বিজেপি ও বিরোধী জোট যখনই পেরেছে, একে অন্যের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে। বিরোধীরা রাফায়েল চুক্তি, দেশের অর্থনীতি, মেরুকরণের রাজনীতি প্রভৃতি বিষয়ে বিজেপির সমালোচনা করেছে। উল্টোদিকে মোদী-শাহ জুটি এইসব বিরোধী দলকে দুর্নীতিবাজদের জোট বলে কটাক্ষ করেছেন। এমনকী মঙ্গলবার প্রার্থী তালিকা প্রকাশের সময়ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, এক কঠিন সময়ের মধ্যে ভোট হচ্ছে। এই ভোট খুব চ্যালেঞ্জিং। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশের বক্তব্য, ঠিক এই সময়ই বিরোধীদেরকেও ভোটের আবেদন করতে বলে টুইট করে মোদী দেখাতে চাইলেন, গণতন্ত্রের পক্ষে যেটা ভালো, সেটাই চান তিনি। এই প্রশ্নে বিরোধীদের সঙ্গেও চলতে রাজি তিনি। শুধু বিরোধী দল বা রাজনৈতিক নেতা নন, সমাজের সব ক্ষেত্রের নামকরা মানুষদের কাছেও এই একই আবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এর মাধ্যমে দেশের মানুষের কাছে নির্বাচনের ঠিক আগে নিজের এক অন্য রূপ তুলে ধরার চেষ্টা করলেন মোদী, এমনটাই ধারণা পর্যবেক্ষকদের।

এছাড়াও বলিউডের প্রথম সারির একঝাঁক নায়ক-নায়িকাদের টুইট করেন মোদী। সেই তালিকায় আছেন, অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, সলমন খান, আমির খান, অক্ষয় কুমার, রণবীর সিং, ভিকি কৌশল, আয়ুষ্মান খুরানা, দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট, অনুষ্কা শর্মা প্রমুখ। গায়িকা লতা মঙ্গেশকর থেকে শুরু করে প্রযোজক-পরিচালক করণ জোহরও ছিলেন এই তালিকায়। এছাড়াও বর্তমান ক্রিকেটারদের মধ্য বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রোহিত শর্মা এবং প্রাক্তন ক্রিকেটারদের মধ্যে শচীন তেন্ডুলকর, বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, ভিভিএস লক্ষ্মণকে টুইট করেন মোদী। ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা, সিন্ধু, কিদাম্বি শ্রীকান্তকেও টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

মোদীর টুইটের তালিকায় ছিলেন দক্ষিণের অভিনেতা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের এডিটররা। এছাড়াও ভারতবর্ষের নামকরা শিল্পপতি থেকে শুরু করে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কেও টুইট করে একই অনুরোধ করেন মোদী। প্রতিটি টুইটের মূল বক্তব্য ছিল, সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের নামকরা এই ব্যক্তিত্বরা যাতে দেশবাসীর কাছে অনুরোধ করেন, যাতে গণতন্ত্রের এই উৎসবে যত বেশি সংখ্যক মানুষ ভোট দিতে এগিয়ে আসেন।

আরও পড়ুন

বাংলার পুলিশ দলদাস, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করুক কমিশন, দাবি জানালেন মুকুল, রবিশঙ্কররা

Shares

Comments are closed.