গান্ধীর আদর্শকে ছড়িয়ে দিক চলচ্চিত্র জগৎ, বদল আসুক ভাবনায়, শাহরুখ-আমিরদের বার্তা দিলেন মোদী

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: মহাত্মা গান্ধীর আদর্শকে শিরা-উপশিরায় অনুভব করুক গোটা দেশ। পরিবর্তন আসুক চিন্তাধারায়, চলার পথে, ব্যবহারে-আচরণে, সার্বিক সত্তায়। এই গুরুদায়িত্ব নিতে হবে ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতকে, এমনই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সিনেমার মাধ্যমে গান্ধীজির আদর্শকে ছড়িয়ে দিতে হবে কোটি কোটি ভারতবাসীর মধ্যে। গেঁথে দিতে হবে তাঁদের মনে। তবেই আসবে অন্তরাত্মায় বদল। এই ভাবনার পূর্তি উপলক্ষ্যেই শনিবার একটা গোটা সন্ধ্যা বলিউড তারকাদের সঙ্গেই কাটালেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

    দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আজ ছিল চাঁদের হাট। বলি বাদশা শাহরুখ খান থেকে পারফেকশনিস্ট আমির খান, কঙ্গনা রানাওয়াত, একতা কপূর, অশ্বিনী আইয়ার তিওয়ারি থেকে করণ জোহর, জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ, ভিকি কৌশল, সোনম কপূর, অনুরাগ বসু, ইমতিয়াজ আলি-সহ হাজির ছিল অনেক নামী দামি তারকাই।

    গান্ধী ১৫০: মহাত্মা গান্ধীর আদর্শকে সিনেমার মাধ্যমে গোটা দেশে ছড়িয়ে দিক চলচ্চিত্র জগৎ–পরিবর্তন আসুক অন্তরাত্মায়। নতুন লক্ষ্যের খোঁজে বলিউড তারকাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।#ChangeWithin

    The Wall এতে পোস্ট করেছেন শনিবার, 19 অক্টোবর, 2019

    গান্ধীজির আদর্শে অনুপ্রাণিত হওয়ার লক্ষ্যে হ্যাশট্যাগ ‘চেঞ্জ উইথইন’ (#ChangeWithin) এখন সোশ্যাল মিডিয়ার নতুন ট্রেন্ড। বলি তারকাদের প্রায় প্রত্যেকেই প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে এই পরিবর্তনের লক্ষ্যে অঙ্গীকার করেন। মোদী বলেন, “মহাত্মা গান্ধী ছিলেন সামাজিক ও অর্জিত মানবপ্রতিভার এক অনন্য উদাহরণ। তাঁর সৃজনশীলতার তুলনা ছিল না। জাতির চেতনাকে জাগ্রত করার জন্য এই সৃজনশীলতার প্রয়োজন রয়েছে। সিনেমা ও টেলিভিশন জগতের ব্যক্তিত্বরা মহাত্মা গান্ধীর আদর্শকে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এসেছেন। আগামী দিনেও তাঁরা সকলকে এই বার্তা দিন এটাই আমাদের লক্ষ্য। ”

    প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পরে উচ্ছ্বসিত শাহরুখ ও আমির দুজনেই বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এই সাক্ষাৎ মনে রাখার মতো। তিনি অত্যন্ত সহৃদয় ব্যক্তি। খুবই অনুপ্রেরণা দেন। আমরা ধন্য। ”

    একতা কপূরের কথায়, “প্রথমবার মনে হল এমন একজনের সঙ্গে কথা বললাম, যিনি আমাদের থেকেও এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে বেশি ভালো চেনেন।”

    “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করতে পেরে আমি কৃতজ্ঞ। মোদীজি আমাদের চলচ্চিত্র জগতের পাশে রয়েছেন, এটাই সবচেয়ে বড় প্রেরণা।”

    অনুরাগ বসুর কথায়, “আমরা যখন কোনও সিনেমা বানাই তখন মাথায় রাখি এটা কেন বানাচ্ছি। সাধারণ মানুষের সুবিধা কী। আজ মোদীজির কথায় তেমনই একটা কারণ খুঁজে পেলাম। এই আলোচনা সমৃদ্ধ করবে আমাদের চলচ্চিত্র জগতকে। আগামী দিনে অনেক বড় সাফল্য এনে দেবে দেশকে। ”

    একইভাবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পরে আগামী দিনে নিজেদের পরিকল্পনা ও ভাবনার কথা জানিয়েছেন বনি কপূর, কঙ্গনা রানাওয়াত, ইমতিয়াজ আলি প্রমুখ। শুনে নিন তাঁদের মতামত।

     

    পড়ুন দ্য ওয়াল-এর পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More