রবিবার, আগস্ট ২৫

করাচিতে মুশারফের বন্ধুর মেয়ের বিয়েতে গাইলেন মিকা, সমালোচনা দু’দেশেই

দ্য ওয়াল ব্যুরো : জম্মু-কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নিয়েছে মোদী সরকার। আর তারপরেই ভারতের সঙ্গে সবরকমের বাণিজ্যিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। তার মধ্যেই পাকিস্তানের করাচিতে গিয়ে গান গিয়ে দু’দেশেরই সমালোচনার মুখে পড়লেন ভারতের জনপ্রিয় গায়ক মিকা সিং।

সম্প্রতি করাচিতে এক শিল্পপতির মেয়ের বিয়েতে পারফর্ম করেন মিকা। সেই শিল্পপতি আবার প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশারফের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে জানা গিয়েছে। বিয়ের পাত্র মিকা সিং-এর খুব বড় ভক্ত হওয়ায় বিয়েতে তাঁকে গান গাইতে দেখতে চেয়েছেইলন। হবু জামাইয়ের ইচ্ছে পূরণ করতেই নাকি মিকাকে নিয়ে এসে গান গাওয়ান তিনি। এই পারফরম্যান্সের জন্য ১ কোটি টাকাও মিকা পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

৫ অগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিল করে কেন্দ্র। আর মিকা এই পারফর্ম করেন ৮ অগস্ট। কিন্তু সেই গানের ভিডিয়ো সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পরেই তা ভাইরাল হয়। আর তারপরেই শুরু হয় সমালোচনা।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেতা সৈয়দ খুরশিদ শাহ প্রশ্ন তোলেন, সরকারের উচিত এই পরিস্থিতিতে কে ভারতীয় গায়কের ১৪ জনের দলকে পাকিস্তানে ঢোকার অনুমতি দিল, তা খুঁজে বের করা। তিনি বলেন, “এখন এমন একটা সময়, যখন ভারতের সঙ্গে সবরকমের বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে পাকিস্তান। ভারতের সিনেমা, থিয়েটার, নাটক সবকিছুর উপরেই নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। সমঝোতা এক্সপ্রেস, থর এক্সপ্রেস, বাস পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে। সেখানে ভারতীয় গায়কের ভিসাও বাতিল করা উচিত ছিল।”

অবশ্য শুধু পাকিস্তান নয়, ভারতীয় সমর্থকদের সমালোচনার মুখেও পড়েছেন মিকা। তাঁদের বক্তব্য, ভারতের সঙ্গে এখন পাকিস্তানের সম্পর্ক সবাই জানে। দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক বন্ধ হয়েছে। পাকিস্তান এখনও সীমান্তে সন্ত্রাস চালাচ্ছে, জঙ্গি পাঠাচ্ছে। এই সময় কিছু টাকার জন্য পাকিস্তানে গান গাইতে না গেলেই চলছিল না মিকার। দেশের থেকে কিছু টাকা তাঁর কাছে বড় হলো। ভারতীয়রা তাঁকে এত ভালোবাসে। এই তিনি ভালোবাসার দাম দিলেন।

Comments are closed.