শনিবার, অক্টোবর ১৯

ট্রাফিক আইন ভাঙলেন ট্রাফিক কর্তারাই, অভিযোগ ৫১ জনের বিরুদ্ধে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ট্রাফিক আইন ভাঙার বিপুল জরিমানা নিয়ে যখন গোটা দেশে ত্রাহি ত্রাহি রব, তখন নিয়ম ভাঙার অভিযোগ এল খোদ ট্রাফিক পুলিশদের বিরুদ্ধেই। তাও একজন, দু’জন নয়, ৫১ জন। এরা সকলেই আবার উত্তরপ্রদেশের।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মীরাটে ট্রাফিক আইন ভাঙার অভিযোগ এসেছে ৫১ জন ট্রাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে। কোথাও স্পিড লিমিট ভেঙে বেশি গতিতে গাড়ি চালানো, কোথাও বা নেই হেলমেট, কোথাও আবার অন্য কোনও সমস্যা। তবে প্রতিবারই কাঠগড়ায় পাওয়া গিয়েছে খোদ ট্রাফিক পুলিশকেই।

বেশ কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল অসংখ্য ভিডিয়ো। সেখানে দেখা গিয়েছিল নিয়ম ভাঙছে খোদ ট্রাফিক পুলিশ। এই সব ভিডিয়ো মীরাট পুলিশের নজরে আসতেই নড়েচড়ে বসে তারা। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বন্ধ করতে হবে এ সব। সে সব ট্রাফিক পুলিশ আইন ভাঙছেন, তাঁদের হাতেনাতে পাকড়াও করতে হবে। মীরাটের এডিজি প্রশান্ত কুমার জানিয়েছেন, ট্রাফিকের নিয়ম ভাঙার অপরাধে ইতিমধ্যেই ৫১ জন ট্রাফিক পুলিশকে খুঁজে বের করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছে দু’জন ইনস্পেকটর, সাতজন সাব-ইনস্পেকটর। এ ছাড়াও রয়েছেন অসংখ্য কনস্টেবল এবং হেড কনস্টেবল।

কড়া ভাষায় সতর্ক করা হয়েছে এই ৫১ জন ট্রাফিক পুলিশকর্মীকে। পাশাপাশি তাঁদের বলা হয়েছে জুনিয়র এবং সিনিয়র ট্রাফিক পুলিশদের নিয়ম-নীতি মানার ব্যাপারে শিক্ষা দিতে। উত্তর প্রদেশের ডিজিপি ওপি সিং জানিয়েছেন, যে সমস্ত ট্রাফিক পুলিশ রাস্তায় নিয়ম ভাঙছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দ্বিগুণ ফাইন নেওয়া হবে তাঁদের থেকে। এমনিতেই ১ সেপ্টেম্বর থেকে লাঘু হয়েছে নয়া ট্রাফিক আইন। সে ক্ষেত্রে নিয়ম ভাঙলেন এখন অনেক বেশি পরিমাণ ফাইন দিতে হয়। এ বার সেই শাস্তির থেকে রেয়াত করা হবে না ট্রাফিক পুলিশকেও। সাফ জানিয়ে দিল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

Comments are closed.