মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

৪৮ হাজার ধর্মঘটী পরিবহণকর্মীকে বরখাস্ত করল তেলেঙ্গানা সরকার, ‘অমার্জনীয় অপরাধ’ বললেন মুখ্যমন্ত্রী

  • 149
  •  
  •  
    149
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ধর্মঘটী পরিবহণকর্মীদের ‘শাস্তি’ দিতে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল তেলেঙ্গানা সরকার। ৪৮ হাজার পরিবহণকর্মীকে ধর্মঘট করার জন্য বরখাস্ত করল সরকার। টিআরএস নেতা তথা তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও বলেছেন, “এটা অমার্জনীয় অপরাধ।”

তেলেঙ্গানার সড়ক পরিবহণ নিগমের সংযুক্তিকরণ-সহ মোট ২৬ দফা দাবিতে শনি ও রবিবার দু’দিনের ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল পরিবহণকর্মীদের ইউনিয়ন। একটি জনস্বার্থ মামলার রায়ে তেলেঙ্গানা হাইকোর্ট সরকারকে নির্দেশ দেয়, যাতে মানুষের দুর্ভোগ না হয় তার জন্য সরকারকে বিকল্প ব্যবস্থা রাখতে হবে। বাইরে থেকে চালক নিয়ে এসে ১৪ হাজার বাস চালানোর চেষ্টাও করে সরকার। কিন্তু তাতেও বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে বলে সরকারের তরফে দাবি করা হয়েছে।

তেলেঙ্গানার পরিবহণ দফতর জানিয়েছে, এই ধর্মঘটের জন্য প্রায় ১২০০ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে সরকারের। শনিবার সন্ধে ছ’টার সময়ে ধর্মঘট তুলে নেওয়ার জন্য সময়সীমা বেঁধে দেয় সরকার। কিন্তু পরিবহণকর্মীদের সংগঠন তাতেও অনড় থাকে। রবিবার পর্যন্ত চালিয়ে যায় ধর্মঘট। তেলেঙ্গানা সড়ক পরিবহণ নিগমে প্রায় ৫০ হাজার কর্মী কাজ করেন। তার মধ্যে ৪৮ হাজার কর্মীকে বরখাস্ত করেছে সরকার। সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পাল্টা আদালতের দ্বারস্থ হতে চলেছে পরিবহণকর্মীদের ইউনিয়ন।

পরিবহণকর্মীদের দাবি, সরকারি সংস্থা হলেও তাঁদের বেতন কাঠামো রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মতো নয়। দিনের পর দিন ধরে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় বঞ্চিত হচ্ছেন তাঁরা। দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়াতেই এই ধর্মঘট। সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে সোমবারও কার্যত অচল তেলেঙ্গানার সরকারি সড়ক পরিবহণ। এখন দেখার যান সঙ্কট থেকে কবে মুক্ত হয় দক্ষিণের এই রাজ্য।

Comments are closed.