শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০

উপত্যকায় জঙ্গিহানার আশঙ্কা: অমরনাথ যাত্রীদের এয়ারলিফট করবে বায়ুসেনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জঙ্গিহানার আশঙ্কায় তটস্থ কাশ্মীর। উপত্যকা খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। এই পরিস্থিতিতে অমরনাথ তীর্থযাত্রীদের কাশ্মীর থেকে সরিয়ে নিয়ে যেতে জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের পাশে দাঁড়াল ভারতীয় বায়ুসেনা। জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের অনুরোধ ছিল, অমরনাথযাত্রীদের যাতে এয়ার লিফট করে জম্মু, পাঠানকোট বা দিল্লিতে পৌঁছে দেয় বায়ুসেনা। এয়ারফোর্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে  সি-১৭ বিমান ব্যবহার করে অমরনাথযাত্রীদের অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে।

একেকটি সি-১৭ গ্লোবমাস্টার বিমানে ২৩০ জন যাত্রী ধরে। আগামী কয়েক ঘণ্টায় বেশ কয়েকটি বিমান ব্যবহার করে অমরনাথযাত্রীদের সরিয়ে আনা হবে উপত্যকা থেকে। সংবাদসংস্থা এএনআই জানাচ্ছে, ভারতীয় বায়ুসেনার তরফে বলা হয়েছে, “আমরা জম্মু ও কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই অনুরোধ পেয়েছি। তীর্থযাত্রীদের সুরক্ষার জন্য যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সমস্ত ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”

গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামার ঘটনার পর থেকেই উপত্যকায় কড়া সতর্কতা। এর মধ্যেই গোয়েন্দাদের কাছে খবর, ফের নাশকতার ছক কষছে পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন। নাম রয়েছে জইশ ই মহম্মদেরও। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, সেনাবাহিনীর এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যতদিন আমেরিকা সফরে ছিলেন, নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে জঙ্গি লঞ্চপ্যাডগুলি খালি করে দিয়েছিল জঙ্গিরা। কিন্তু ইমরান ইসলামাবাদে ফিরতেই আবার লঞ্চ প্যাডগুলি আগের চেহারায় ফিরেছে। সব মিলিয়ে আতঙ্ক উপত্যকায়। শ্রীনগর বিমানবন্দরে পর্যটকদের ভিড় থিকথিক করছে। টিকিট মিলছে না বিমানের। রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে গোটা জম্মু ও কাশ্মীরে।

Comments are closed.