রবিবার, ডিসেম্বর ৮
TheWall
TheWall

আবারও ভাসবে মুম্বই, অতি ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা পুণে ও ঠাণেতেও, জারি চূড়ান্ত সতর্কতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা বাণিজ্যনগরীতে। মুম্বই, ঠাণে, পুণেতে জারি হয়েছে চূড়ান্ত সতর্কতা।

মাসের শুরুতেই নাগাড়ে বৃষ্টিতে কার্যত ডুবে গিয়েছিল মুম্বই-সহ গোটা মহারাষ্ট্র। প্রাণ হারিয়েছিলেন ৩৮ জনেরও বেশি। যার মধ্যে উত্তর মুম্বইয়ের মালাডে দেওয়াল ধসে পড়ে মৃত্যু হয় ২৩ জনের। মুম্বইয়ের হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, আগামী ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বর্ষণে ভাসতে চলেছে মুম্বই ও লাগোয়া এলাকা। উপকূলবর্তী এলাকায় জারি হয়েছে সতর্কতা। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আগাম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা দলকে।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ২৬ থেকে ২৮ জুলাই পালঘরে জারি হয়েছে লাল সতর্কতা। বিশেষ দরকার ছাড়া মানুষজনকে বাড়ি থেকে বার হতে নিষেধ করা হয়েছে। বৃষ্টির জেরে নীচু এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদেরা। আশঙ্কা ভেঙে পড়তে পারে পুরনো বাড়ির দেওয়াল। পুণে ও ঠাণেতেও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

মঙ্গলবার মাঝরাত থেকেই ফের আকাশভাঙা বৃষ্টি শুরু হয়েছে বাণিজ্যনগরীতে। স্কাইমেট সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার সান্তা ক্রুজে ২৫.৪ মিমি ও কোলাবায় ১১.৬ মিমি বৃষ্টি হয়েছে। বরাবরের মতো গোটা রাজ্যের তুলনায় এ বারও মুম্বইয়ের উপরই এই বৃষ্টির প্রভাব সবচেয়ে বেশি। গোটা শহর জলমগ্ন হয়ে পড়ায় বিমান, রেল এবং সড়ক পরিবহণ একেবারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

মাসের শুরু থেকেই লাগাতার বৃষ্টিতে দক্ষিণ মুম্বই, কান্দিভলি, বোরিভিলি, অন্ধেরি, দাদার, সান্টাক্রুজ, ধারাভি, বাইকুল্লার মতো একাধিক এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছিল। মাঝে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও ফের ভারী বর্ষণের আশঙ্কায় মাথায় হাত পড়ে গেছে প্রশাসনের। আবহাওয়া দফতরের খবর, ৪৮ ঘণ্টা পরেও অবস্থার উন্নতির খুব একটা সম্ভাবনা নেই। এ দিকে পূর্ব রাজস্থান, বিহার, উত্তরপ্রদেশ, গোয়া, কর্ণাটকের উপকূলবর্তী এলাকাতেও ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হয়েছে।

Comments are closed.