বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

ইসরোর বিজ্ঞানী পরিচয় দিয়ে বিয়ে, সত্যিটা জেনে চমকে উঠলেন তরুণী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিয়ের আগে নিজের পরিচয় দিয়েছিলেন ইসরোর বিজ্ঞানী হিসেবে। বিয়ের বেশ কয়েকমাস পরে নেটফ্লিক্স-এর লোকেশন দেখে তাঁর জালিয়াতি ধরে ফেললেন স্ত্রী। ধরা পড়ার পরেই পরিবারের লোক -সহ চম্পট দিয়েছেন জিতেন্দ্র।

পুলিশ সূত্রে খবর হরিয়ানার রেওয়ারির বাসিন্দা জিতেন্দ্রর সঙ্গে পরিচয় হয় দিল্লির এক তরুণীর। গবেষণারত ওই তরুণীকে নিজের পরিচয় দিতে গিয়ে জিতেন্দ্র বলেন, তিনি আইআইটি খড়্গপুর থেকে পড়াশোনা করেছেন। তারপর ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন-এ বিজ্ঞানীর কাজ করতেন। সেখান থেকে বিজ্ঞানী হিসেবে ইসরোতে যোগ দেন তিনি। নিজের বক্তব্যের সমর্থনে বেশ কিছু জাল কাগজপত্র দেখান তিনি।

এইসব কাগজপত্র দেখে বিশ্বাস হয় তরুণীর পরিবারের। মে মাসে দু’জনের বিয়ে হয়। তারপর নাকি জিতেন্দ্র বলেন, তিনি নাসাতে একটি ট্রেনিং করতে যাবেন। সেখান থেকে ফিরে এসে তিনি জানান বেঙ্গালুরুতে চাকরি করতে যাচ্ছেন।

কিন্তু কিছুদিন পরে ওই তরুণী দেখেন জিতেন্দ্র নিজের নেটফ্লিক্স-এর অ্যাকাউন্টের ব্যবহার করছেন গুরুগ্রাম থেকে। যৌথ নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট থাকায় সেটি বুঝতে পারেন তরুণী। তারপরেই জিতেন্দ্রকে চেপে ধরল সব সত্যি কথা বলেন তিনি।

জিতেন্দ্র জানান তিনি বেকার। তাঁর আগে একটি বিয়েও হয়েছে। সেই স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের মামলা চলছে তাঁর। বারবার বাইরে যাওয়ার নাম করে গুরুগ্রামে এসে থাকতেন তিনি। সব শুনে পুলিশে অভিযোগ করেন তরুণী। তারপর থেকেই পরিবার নিয়ে জিতেন্দ্র পলাতক। তাঁদের খোঁজ করছে পুলিশ।

 

Comments are closed.