বুধবার, মার্চ ২০

যমজ ভাই, ক্যাট-এ দুজনেই পেলেন ৯৯ শতাংশের বেশি নম্বর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : দুজনের মধ্যে বয়সের ফারাক মাত্র ২ মিনিটের। ছোট থেকে একসঙ্গে পড়াশোনা। একই সঙ্গে বসেছিলেন ২০১৮-র কমন অ্যাডনিশন টেস্ট ( ক্যাট )-এ। ফল বেরাতে দেখা গেল দুজনেই পেয়েছেন ৯৯ শতাংশের বেশি। ছোট ভাই দাদার থেকে মাত্র ০.২ শতাংশ নম্বর কম পেয়েছেন।

দিল্লির বাসিন্দা অভিষেক ও অনুভব গর্গ যমজ ভাই। ছোট থেকে একই সঙ্গে পড়াশোনা কিন্ডার গার্টেনে। সেই ছোট থেকেই প্রত্যেক পরীক্ষায় যুগ্মভাবে প্রথম হতেন দুই ভাই। একই সঙ্গে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় বসে দুজনেই ভর্তি হন দিল্লি আইআইটিতে। ক্যাট পরীক্ষাতেও সেই ট্র্যাডিশন জারি থাকলো। অভিষেক পেয়েছেন ৯৯.৯৯ শতাংশ নম্বর। ভাই অনুভব পেয়েছেন ৯৯.৭৯ শতাংশ নম্বর।

আরও পড়ুন এ ঘটনা প্রথম নয়, ডিএম ও তাঁর শ্বশুরবাড়ি নিয়ে ক্ষোভ ছিলই আলিপুরদুয়ারে

কীভাবে সফল হলেন এত কঠিন পরীক্ষা? এর উত্তরে অভিষেক জানান, মক টেস্ট হচ্ছে সব সাফল্যের চাবিকাঠি। তাঁরা বারবার মক টেস্ট দিয়েছেন। সারা বছর অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। তার ফল পেয়েছেন। এর পেছনে অবশ্য তাঁদের বাবা তরুণ গর্গের কৃতিত্ব বলতে ভুললেন না দুই ভাই। তরুণ গর্গ মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়ার মার্কেটিং বিভাগের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর। এক সময়ে তিনি আইআইএম লখনৌয়ের ছাত্র ছিলেন। তিনিই দুই ভাইকে ম্যানেজমেন্ট পড়ার দিকে উদ্বুদ্ধ করেছেন। এছাড়াও মা ও শিক্ষকদের কৃতিত্বের কথাও বলেন দুই ভাই।

অনুভবের আবার মনে হচ্ছে অন্য একটা কথা। বললেন, “দাদার থেকে আমি দু’মিনিটের ছোট। ঘটনাচক্রে আমি ওর থেকে ০.২ শতাংশ নম্বরই কম পেয়েছি। এটা কাকতালীয়।” দুই ভাইয়েরই ইচ্ছে আইআইএম আমেদাবাদে পড়াশোনা করার। সেখানেও একে অন্যকে ছাড়তে চান না অভিষেক ও অনুভব।

২০১৮ সালের ক্যাট পরীক্ষার ফল বেরাতে দেখা গিয়েছে, ১১ জন পরীক্ষার্থী ১০০ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন। এই ১১ জনের মধ্যে সাত জন মহারাষ্ট্রের, দু’জন পশ্চিমবঙ্গের, বিহার ও কর্ণাটকের এক জন করে পরীক্ষার্থী রয়েছেন। তারপরেই ৯৯.৯৯ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন ২১ জন পরীক্ষার্থী।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.