করোনা আক্রান্ত মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী, ক্রমেই খারাপ হচ্ছে বাণিজ্য নগরীর পরিস্থিতি

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতে করোনা সংক্রামিত রাজ্যগুলির মধ্যে সবথেকে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ভারতের এক তৃতীয়াংশ। রাজ্যের মধ্যে আবার সবথেকে খারাপ অবস্থা বাণিজ্য নগরী মুম্বইয়ের। করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন মহারাষ্ট্রের আবাসন মন্ত্রী জিতেন্দ্র আওহাদ।

    মে মাসের শুরুর দিকেই সংক্রমণ ধরা পড়ে জিতেন্দ্র আওহাদের। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। দু’দিন ভেন্টিলেশনেও রাখতে হয় তাঁকে। কিছুদিন হাসপাতালে কাটানোর পরে অবশ্য সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিনি। মন্ত্রীর আক্রান্ত হওয়া থেকেই রাজ্যের সামগ্রিক পরিস্থিতি বোঝা যাচ্ছে।

    সুস্থ হয়ে ওঠার পরে থানের এই বিধায়ক জানিয়েছেন, “আমরা দায়িত্বজ্ঞানহীনতার জন্যই কোভিড ১৯ সংক্রমণ হয় আমার। আমি সবার সতর্কতা ঠিকমতো শুনিনি। তাই আমি এই জালে জড়িয়ে পড়েছি।” সুস্থ হয়ে ওঠার পরেই অবশ্য ত্রাণের কাজ শুরু করেছেন এই এনসিপি নেতা। নিজের বিধানসভা এলাকায় ত্রাণ বিলি করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

    জিতেন্দ্র জানিয়েছেন, তাঁর ইচ্ছাশক্তির ফলেই তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পেরেছেন। সেইসঙ্গে নিজেকে ভাগ্যবান বলেও মনে করছেন তিনি। মহারাষ্ট্রে এক আইএএস অফিসারকে প্লাজমা থেরাপি দেওয়া হয়েছে। সেই উদাহরণ টেনে এনেই এই কথা বলেন তিনি।

    সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের আর এক মন্ত্রীসভার সদস্য তথা কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা করোনা সংক্রামিত হয়েছেন। তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। এই ধরনের ঘটনা সামনে আসায় চিন্তায় রয়েছে প্রশাসনও।

    আরও পড়ুন BREAKING: রাজ্যে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৩৪৪, জেলাগুলিতে দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ: স্বাস্থ্য ভবন

    এই মুহূর্তে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৫৮,৩৩৩। মৃত্যু হয়েছে ৪৫৩১ জনের। ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৯,৬৯২ জন। তার মধ্যে মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬৯৪৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৮৯৭ জনের। তবে ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৭৯১৮ জন।

    মহারাষ্ট্রের মধ্যে শুধুমাত্র মুম্বইয়ে ৩৩,৮৩৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে। মৃত্যু হয়েছে ১০৪৪ জনের। এভাবে ক্রমাগত আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় চিন্তায় প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে জানিয়েছেন, ৩১ মে-র পরে ফের লকডাউন বাড়ানো হতে পারে। নইলে সংক্রমণ রোখা সম্ভব নয়। ভারতের অনেক রাজ্যে সংক্রমণ কমলেও মহারাষ্ট্রে প্রথম থেকেই যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে সেটাই ভাবাচ্ছে প্রশাসনকে। কী ভাবে এই সংক্রমণ কমানো যায়, সেই পরিকল্পনাতেই ব্যস্ত তাঁরা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More