২৪ ঘণ্টায় পজিটিভ ৮৩৯২, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়াল

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের একদিনে সর্বাধিক বৃদ্ধি। রবিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছিল, একদিনে ৮৩৮০ জন আক্রান্ত হয়েছেন নভেল করোনাভাইরাসে। পরের ২৪ ঘণ্টায় তা আরও বেড়ে গেল। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, সোমবার, ১ জুন, সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৯০,৫৩৫। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৮৩৯২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

    কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৫৩৯৪ জনের। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ২৩০ জন। রবিবার সকালের বুলেটিনে মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমেছিল। এদিন তা ফের বেড়েছে।

    বেড়েছে সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তিদের সংখ্যাও। রবিবার সকালের বুলেটিনে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৪৬১৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৮৩৫ জন। এই মুহূর্তে ভারতে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯১৮১৯ জন। অর্থাৎ সুস্থতার হার ৪৮.১৯ শতাংশ। গতকাল সুস্থতার হার ছিল ৪৭.৭৬ শতাংশ। অর্থাৎ এদিন সুস্থতার হার আরও বেড়েছে। এই মুহূর্তে ভারতে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৯৩৩২২।

    দেশে আক্রান্তের সংখ্যা গত কয়েক দিনে দ্রুত বেড়েছে। এই মুহূর্তে বিশ্বের প্রথম ১০ করোনা আক্রান্ত দেশের মধ্যে সাত নম্বরে রয়েছে ভারত। স্বাস্থ্যমন্ত্রক যদিও জানিয়েছে, গত কয়েক দিনে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির প্রধান দুটি কারণ হল, টেস্টের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া ও ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের বাড়ি ফেরা। এখন প্রতিদিন গড়ে প্রায় ২ লাখ টেস্ট হচ্ছে। শ্রমিকদের যাতায়াত বাড়ার পর থেকে তাঁদের মধ্যেই সংক্রমণ বেশি পাওয়া যাচ্ছে। ফলে সংখ্যাটাও বাড়ছে।

    ভারতে আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৭,৬৫৫। মৃত্যু হয়েছে ২২৮৬ জনের। অর্থাৎ ভারতে মোট আক্রান্তের ৩৫.৫০ শতাংশ এই রাজ্যেই রয়েছে। মৃতের পরিসংখ্যানে তো মারাঠা প্রদেশের হাল আরও খারাপ। ভারতে করোনায় মোট মৃত্যুর ৪২.৩৮ শতাংশ এই রাজ্যেই হয়েছে। বর্তমানে এই রাজ্যে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৩৬,০৪০, যা ভারতের মোট অ্যাকটিভ রোগীর ৩৮.৬২ শতাংশ।

    এরপরেই রয়েছে তামিলনাড়ু। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২২,৩৩৩। মৃত্যু হয়েছে ১৭৩ জনের। তৃতীয় স্থানে রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯,৮৪৪। মৃত্য হয়েছে ৪৭৩ জনের। তারপরে রয়েছে গুজরাত। পশ্চিমের এই রাজ্যে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন  ১৬,৭৭৯ জন। মৃত্য হয়েছে ১০৩৮ জনের।

    মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি ও গুজরাত মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ১,২৬,৬১১। এই সংখ্যা ভারতের মোট করোনা আক্রান্তের ৬৬.৪৫ শতাংশ। এই চার রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৯৭০ জনের। ভারতে করোনায় মোট মৃত্যুর ৭৩.৬০ শতাংশ শুধুমাত্র এই চার রাজ্যেই হয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More