বিজেপি-কে সাহায্য করতে ‘হাত’ বাড়াতে প্রস্তুত কংগ্রেস!

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লোকসভার আগে যখন কংগ্রেস নেতৃত্ব মরিয়া, লড়াইটা নরেন্দ্র মোদী বনাম রাহুল গান্ধীতে নিয়ে যেতে, ঠিক তখনই বিজেপি-র উদ্দেশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে চাইল কংগ্রেস। তাও একেবারে লোক জানিয়ে।

কী ব্যাপার?

মঙ্গলবার সকালেই দেখা যায় বিজেপি-র ওয়েবসাইট হ্যাক হয়েছে। তারপর ওয়েবসাইটটিকে পুনরুদ্ধারের জন্য ময়দানে নামে গেরুয়া শিবিরের আইটি সেল। কিন্তু বুধবার বেলা পর্যন্ত ওই ওয়েবসাইটটি খোলেনি। আর বিজেপি-র মতো একটি তথ্যপ্রযুক্তিতে পারদর্শী দলকে যদি ভোটের আগে বিপাকে পড়তে হয়, বিরোধী শিবিরের খুশি হওয়ারই কথা। এ দিন সকালে সর্বভারতীয় কংগ্রেসের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বন্ধ হয়ে যাওয়া ওয়েবসাইটের একটি স্ক্রিনশট দিয়ে লেখা হয়, “সুপ্রভাত বিজেপি। আমরা বুঝতে পারছি, তোমরা দীর্ঘক্ষণ ধরে ম্রিয়মাণ হয়ে রয়েছ। যদি ব্যাকআপের জন্য আমাদের সাহায্য লাগে, আমরা তার জন্য প্রস্তুত।”

এই টুইটটি যে এক্কেবারেই সিরিয়াস নয় তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে টুইটের শেষে একটি স্মাইলিতেই। যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি মুখ দু’হাত তুলে মুচকি হাসছে।

মঙ্গলবার সকালেই বিজেপি নেতৃত্বের নজরে আসে বিষয়টি। দেখা যায় www.bjp.org তে ক্লিক করলেই ভেসে উঠছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি আর কিছু অশ্লীল শব্দ। কয়েক সেকেন্ড পরেই ভেসে উঠছে একটি পপ-আপ। যাতে রয়েছে একটি অশালীন ক্লিপিং। তখনই বোঝা গিয়েছিল হ্যাক হয়েছে সর্বভারতীয় বিজেপি-র ওয়েবসাইটটি। বেলায় বিজেপি নেতৃত্ব ব্যাপারটি মেনে নেয়। গেরুয়াবাহিনীর তরফে জানানো হয়, সাইবার হানা হয়েছে। অনেকে সন্দেহ প্রকাশ করেন পাকিস্তানি হ্যাকারদের বিরুদ্ধেও। কিন্তু চব্বিশ ঘণ্টা পরও তা স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরানো যায়নি। ওয়েবসাইটে ক্লিক করলেই দেখা যাচ্ছে ‘উই উইল বি ব্যাক সুন!’ কতক্ষণে হবে সে ব্যাপারেও কিছু বলতে পারছেন না বিজেপি নেতারা।

পর্যবেক্ষকদের মতে, যে সাইবার অস্ত্র দিয়ে চোদ্দর ভোটে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আক্রমণের তুফান তুলেছিল বিজেপি, রাহুল গান্ধীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পাপ্পু বানিয়ে ছেড়েছিল, সেই দলই যদি সাইবার বিপাকে পড়ে প্রতিপক্ষ তো ব্যঙ্গ করবেই। তাও আবার ভোটের আগে!

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More