মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৮
TheWall
TheWall

‘ফেক এনকাউন্টারে’ ১৪ জনকে হত্যা! সিবিআইয়ের যুগ্ম অধিকর্তার বিরুদ্ধে মোদীর অফিসে চিঠি ডিএসপি-র

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাকেশ আস্থানা বনাম অলোক বর্মার সংঘাত কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি সিবিআইয়ের ভিতরকার অবস্থা সামনে এনে দিয়েছিল কয়েক মাস আগেই। তোলপাড় পড়ে গিয়েছিল দেশে। সেই সিবিআইয়ে ফের কোন্দল। এ বার যুগ্ম কমিশনারের বিরুদ্ধে ভুয়ো সংঘর্ষ বা ফেক এনকাউন্টারে ১৪ জন নিরীহ মানুষকে হত্যা করার অভিযোগ তুললেন কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সির ডেপুটি কমিশনার (প্রশাসন)। চিঠি দিলেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরকে।

জানা গিয়েছে গত ২৫ সেপ্টেম্বর সিবিআইয়ের ডেপুটি সুপারিনটেন্ডেন্ট এনপি মিশ্র চিঠি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরে। শুধু নরেন্দ্র মোদীর দফতর নয়। তিনি চিঠি দিয়েছেন সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশনার এবং সিবিআই ডিরেক্টরকেও। পাঁচ পাতার চিঠিতে মিশ্র সরাসরি অভিযোগ এনেছেন যুগ্ম অধিকর্তা একে ভাটনগরের বিরুদ্ধে। সরাসরি অভিযোগ তুলে বলেছেন, ভুয়ো এনকাউন্টারে ঝাড়খণ্ডের ১৪ জন নিরীহ মানুষকে হত্যা কররেছেন ভাটনগর।

ওই চিঠিতে এনকে মিশ্র নাকি এ-ও লিখেছেন, এই রকম একজন লোক, যিনি পদকে ব্যবহার করে গরিব মানুষকে খুন করছেন তিনি কী করে সিবিআইয়ের মতো এত ঐতিহ্যশালী প্রতিষ্ঠানের যুগ্ম ডিরেক্টর পদে থাকতে পারেন? তিনি কি আদৌ নিজের পদের গরিমা জানেন? মিশ্র দাবি জানিয়েছেন, দ্রুত এই ভাটনগরকে যুগ্ম অধিকর্তা পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক। এবং এই ভুয়ো সংঘর্ষে ১৪ জনকে হত্যার যথাযথ তদন্ত করা হোক।

ওই চিঠিতে ডেপুটি সুপারিনটেন্ডেন্ট আরও জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই ওই ১৪ জনের পরিবারের মধ্যে থেকে বেশ কয়েকটি পরিবার ভাটনগরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। যুগ্ম অধিকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতিরও অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

পর্যবেক্ষকদের মতে, এমনিতেই কেন্দ্রীয় তদন্ত এজেন্সি নিয়ে বিরোধীদের অভিযোগের শেষ নেই। কংগ্রেস থেকে তৃণমূল, এনসিপি থেকে তেলুগু দেশম—দেশের প্রায় সব বিজেপি বিরোধী দলই এ ব্যাপারে এক সুরে অভিযোগ তুলছে। এর মধ্যেই সিবিআইয়ের মধ্যে এমন কোন্দল তাদেরই আরও অক্সিজেন জোগাবে বলে মনে করছেন তারা।

Share.

Comments are closed.