বুধবার, মার্চ ২০

বিধানসভায় স্টিং অপারেশন, ঘুষ চাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার যোগী সরকারের তিন মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ঘুষ চাইছেন খোদ মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব। তাও আবার বিধানসভায় দাঁড়িয়ে। আর তা করতে গিয়েই ধরা পড়েছেন তাঁরা। আপাতত শ্রীঘরে জায়গা হয়েছে তাঁদের।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। বুধবার এক খবরের চ্যানেলে দেখানো হয় এই স্টিং অপারেশনের ভিডিও। সেখানে দেখা যায় বিধানসভার মধ্যেই ঘুষ চাইছেন যোগী সরকারের তিন মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিবরা। এই ভিডিও প্রকাশ হতেই বিক্ষোভ দেখানো শুরু করেন বিরোধীরা। তড়িঘড়ি এডিজি রাজীব কৃষ্ণণের নেতৃত্বে একটি স্পেশ্যাল ইনভেস্টিগেশন টিম ( সিট ) গঠন করেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এই দলকে দায়িত্ব দেওয়া হওয়া হয় গোটা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার জন্য।

আরও পড়ুন ‘জানতাম প্রাণের ভয় আছে, তারপরেও শবরীমালায় ঢুকেছি’, কারণ……

তদন্ত করতে গিয়ে জানা যায়, সত্যি সত্যি ঘুষ চেয়েছেন ওই তিন ব্যক্তিগত সচিব। তাঁরা হলেন খনি ও এক্সাইজ মন্ত্রী অর্চনা পাণ্ডে, অনগ্রসর শ্রেণি উন্নয়ন মন্ত্রী ওম প্রকাশ রাজভর ও শিক্ষামন্ত্রী সন্দীপ সিংয়ের ব্যক্তিগত সচিব। স্টিং অপারেশনের ভিডিওর সত্যতা যাচাই করা হয়। দেখা যায় ওম প্রকাশ রাজভরের ব্যক্তিগত সচিব ওম প্রকাশ কাশ্যপ একজনের কাছে ৪০ লক্ষ টাকা চাইছেন। বাকি দুজনকেও টাকার বিনিময়ে কাজ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিতে দেখা যায়। তিন ক্ষেত্রেই অবশ্য খবরের চ্যানেলের কর্মীই পরিচয় গোপন করে বিধানসভায় গিয়েছিলেন। তখনই গোপনে তোলা হয় এই ভিডিও।

স্পেশ্যাল ইনভেস্টিগেশন টিম নিজেদের তদন্ত রিপোর্ট বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর অফিসে জমা দেন। মুখ্যমন্ত্রী সব মন্ত্রীদের ডেকে তাঁর বাসভবনে বৈঠক করেন। তারপরেই ওই তিন মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিবকে গ্রেফতারির নির্দেশ দেওয়া হয়। তাঁদের বরখাস্ত করা হয়েছে।

বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, তাঁর সরকার সবসময় দুর্নীতির বিরুদ্ধে। তাঁর দলেরও কেউ যদি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকে, তাঁকে তিনি ছেড়ে কথা বলবেন না। এই ঘটনায় আরও একবার তা প্রমাণ হলো।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.