শনিবার, আগস্ট ২৪

মুম্বইয়ের হোটেলে জোড়া ডিম ১৭০০, সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ফেটে গেল’!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সোনার ডিম নাকি?

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসের কথা মনে পড়ে? কলকাতার খুচরো বাজারে এক জোড়া ডিম বিকোচ্ছিল ২০টাকায়। আঁতকে উঠেছিল বঙ্গবাসী। যে মধ্যবিত্ত বাঙালি খরচা সাশ্রয়ে ডিমের ঝোল ভাতকে বেছে নেয়, তাঁদের মাথায় বাজ পড়েছিল। একটা ডিমের দাম ১০টাকা! কিন্তু মুম্বইয়ে একটা ডিমের দাম ৮৫০ পঞ্চাশ টাকা। জোড়া ডিম ১৭০০ টাকা। তাও আবার ঝোল বা কারি নয়। সেদ্ধ ডিম। খোলা ছাড়িয়ে প্লেটে দিলেই গুনতে হবে কড়কড়ে ১৭০০টাকা!

হ্যাঁ! এমনটাই হয়েছে ডকুমেন্টরি ফটোগ্রাফার কার্তিক ধরের সঙ্গে। শ্যুটিং-এর জন্য আপাতত কার্তিক রয়েছেন মুম্বইতে। উঠেছেন ফোর সিজনস হোটেলে। সেখানেই তাঁর সঙ্গে ঘটেছে এমন ঘটনা। এক জোড়া ডিম সেদ্ধ ১৮ শতাংশ ট্যাক্স নিয়ে দাম হয়েছে ১৭০০ টাকা।

কয়েকদিন আগেই চণ্ডীগড়ে যে ডব্লিউ ম্যারিয়টে অভিনেতা রাহুল বোসের সঙ্গে কলার দাম নিয়ে একই ঘটনা ঘটেছিল। দুটি কলার দাম নেওয়া হয়েছিল ৪৪২ টাকা। সেই কথা রাহুল টুইট করার পর হইহই পড়ে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। কলা কেলেঙ্কারি নিয়ে একাধিক জোক, মিম ছড়িয়ে পড়েছিল নেট দুনিয়ায়। এ বার হল ডিম নিয়ে।

ডিম সেদ্ধর বিল হাতে পাওয়ার পরই ফটোগ্রাফার কার্তিক ধর রাহুল বোসকে ট্যাগ করেন। বিলের ছবি দিয়ে কার্তিক লেখেন, ‘রাহুল ভাই, এ বার আন্দোলন হবে না?”

এমনিতে ব্রেকফাস্ট ডিম-কলা-পাউরুটি অনেকেরই রুটিন। এ সব দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই লিখছেন, কলা আর ডিম তো হয়ে গেল। এ বার দু’পিস স্লাইস পাউরুটির দাম কোনও একটা হোটেল হাজার তিনেক টাকা দাম নিয়ে নিক, তাহলেই ষোল কলা পূর্ণ হয়ে যাবে।

Comments are closed.