দেশে প্রায় ১০ হাজার কোভিড পজিটিভ গত ২৪ ঘন্টায়, মৃত্যু হয়েছে ২৭৩ জনের

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী ৫ জুন শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২,২৬,৭৭০। এ যাবৎ দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৬৩৪৮ জনের। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১,০৯,৪৬২ জন। দেশে এখন অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ১,১০,৯৬০।

    গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৮৫১ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৭৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কোভিড সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ২৭২৫ জন। ভারতে এখন সুস্থতার হার ৪৮.২৭ শতাংশ।

    করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মহারাষ্ট্রেই এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। মারাঠা প্রদেশে এ যাবৎ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭,৭৯৩ জন। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মহারাষ্ট্ৰে মৃত্যু হয়েছে মোট ২৭১০ জনের। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৩৩,৬৮১ জন। মহারাষ্ট্রে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৪১,৪০২।

    করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারতের কোভিড পরিসংখ্যানে সব রাজ্যকে ছাপিয়ে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এরপরে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। দক্ষিণের এই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোট ২৭,২৫৬। মৃত্যু হয়েছে ২২০ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১৪,৯০২ জন। তামিলনাড়ুতে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ১২,১৩৪।

    তৃতীয় স্থানে রয়েছে রাজধানী শহর দিল্লি। এখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২৫,০০৪ জন। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৬৫০ জনের। মহারাষ্ট্র এবং গুজরাতের পর দিল্লিতেই কোভিড সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। রাজধানী শহরে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৮৯৮ জন। আর দিল্লিতে এখন অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ১৪,৪৫৬।

    ভারতের কোভিড পরিসংখ্যানে চতুর্থ স্থানে থাকা গুজরাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোট ১৮,৫৮৪। মৃত্যু হয়েছে ১১৫৫ জনের। গুজরাতে কোভিড-১৯ সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ১২,৬৬৭ জন। পশ্চিমের এই রাজ্যে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৪৭৬২।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More