রবিবার, এপ্রিল ২১

৯৭ কেন্দ্রে ৪২৩ জন কোটিপতি দ্বিতীয় দফায়, খুন-ধর্ষণ ছাড়াও নানা ফৌজদারি মামলা ২৫১ জন প্রার্থীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ ১৮ এপ্রিল। মোট ভোট হবে দেশের ৯৭টি আসনে। আর তাতে প্রার্থী হয়েছে ১৫৯০ জন। এর মধ্যে ২৫১ জন প্রার্থীর বিরুদ্ধেই নানা ফৌজদারি মামলা রয়েছে। ১০ জনের বিরুদ্ধে আবার ধর্ষণের অভিযোগে মামলা রয়েছে।

দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণের আগে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস। আর তাতেই মিলেছে বিস্ময়কর পরিসংখ্যান। দেখা গিয়েছে মোট প্রার্থীর ১৬ শতাংশই নানা ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত। ১৬৭ (১১ শতাংশ) জনের বিরুদ্ধে রয়েছে গুরুতর অভিযোগ। ৩ জন প্রার্থী ইতিমধ্যেই দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। ৬ জনের বিরুদ্ধে রয়েছে খুনের অভিযোগ। খুনের চেষ্টার অভিযোগ ২৫ জনের বিরুদ্ধে। ৮ জনের বিরুদ্ধে কিডন্যাপ, ১০ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে।

এই সব অভিযুক্ত প্রার্থীদের মধ্যে প্রথমসারির দল বিজেপির ১৬ জন, কংগ্রেসের ১৬ জন, এআইএডিএমকের ১১ জন, বিএসপির ৪ জন।

দ্বিতীয় দফার ভোট রীতিমতোই ভয়ঙ্কর। কারণ, নির্বাচন কমিশনের নিয়ম মতো কোনও কেন্দ্রে তিন বা তার বেশি প্রার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা চালু থাকলে তাকে রেড অ্যালার্ট আসন বলা হয়। সেই হিসেবে দ্বিতীয় দফার ৯৭ আসনের মধ্যে ৪১টি রেড অ্যালার্ট কেন্দ্র।

শুধু ফৌজদারি মামলাই নয়, টাকার হিসেবেও দ্বিতীয় দফার প্রার্থীরা বেশ শক্তিশালী। ১৫৯০ জনের মধ্যে ৪২৩ জন (২৭ শতাংশ) কোটি টাকার বেশি মূল্যের সম্পত্তির মালিক। প্রথমসারির দলের মধ্যে বিজেপির ৪৫ (৮৮ শতাংশ), কংগ্রেসের ৪৬ (৮৭ শতাংশ), ডিএমকের ২৩ (৯৬ শতাংশ), এআইএডিএমকের ২২ (১০০ শতাংশ), বিএসপির ২১ (২৬ শতাংশ) প্রার্থী কোটিপতি।

আরও পড়ুন

মোদী-প্রিয়ঙ্কা লড়াই নিয়ে জল্পনা বহাল, বারাণসীর সঙ্গে প্রয়াগরাজ নিয়েও চুপ কংগ্রেস

Shares

Comments are closed.