শনিবার, অক্টোবর ২০

পুরুষদের তুলনায় মহিলারাই ধূমপানে বেশি আসক্ত, জানাল অ্যাসোচ্যামের সমীক্ষা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একুশ শতকে রাস্তাঘাটে মহিলাদের সিগারেট খেতে দেখাটা খুব সাধারণ বিষয়। জিনস্‌-এর পকেট হোক কিংবা হ্যান্ডব্যাগের সাইডের চেন, অনেক মহিলাই আজকাল সিগারেট নিয়েই চলাফেরা করেন। তবে তরুণ প্রজন্মের মধ্যেই ঝোঁকটা বেশি। সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি সমীক্ষা করেছিল অ্যাসোচ্যাম। আর সেখানেই উঠে এসেছে বেশ কিছু নতুন তথ্য।

পুরুষদের তুলনায় মহিলারাই ধূমপানে বেশি আসক্ত। আসোচ্যামের ওই সমীক্ষায় উঠে এসেছে এই তথ্য। ২২ থেকে ৩০ বছর বয়সী ২০০০ জন মহিলার উপরে করা হয়েছে সমীক্ষা। আর জায়গা হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছিল আমেদাবাদ, দিল্লি, চেন্নাই, কলকাতা, বেঙ্গালুরু, হায়দ্রাবাদ, জয়পুর, লখনৌ, জয়পুর, মুম্বই এবং পুনে—এই এগারোটি শহরকে।

সমীক্ষা অনুযায়ী, একদিনে ছেলেদের তুলনায় আজকাল মেয়েরাই বেশি সিগারেট খান। তবে সবাই অবশ্য চেন স্মোকার নন। গবেষণা বলছে, যত মহিলা সিগারেট খান তার মাত্র ২ শতাংশই অতিরিক্ত ভাবে সিগারেটের প্রতি আসক্ত। দিনে অন্তত এক প্যাকেট সিগারেট তো তাঁরা খেয়েই থাকেন। কিন্তু কেন খান সিগারেট? বেশিরভাগেরই একটাই জবাব। অফিসের কাজের চাপ এবং মানসিক স্ট্রেস থেকে মুক্তি পেতেই সুখটান দিয়ে থাকেন তাঁরা। প্রথমে ভালোলাগা থেকেই শুরু করেছিলেন। কিন্তু ধীরে ধীরে তা পরিণত হয়েছে আসক্তিতে। অনেক মহিলাই আবার এও বলে থাকেন যে ওজন কমানোর জন্য তাঁরা সিগারেট খান। তবে হ্যাঁ শহরতলি বা মফঃস্বলের তুলনায় মেট্রো সিটিগুলোতেই মহিলা স্মোকারের সংখ্যা বেশি। তালিকায় রয়েছে বেঙ্গালুরু, দিল্লি, চেন্নাই, কলকাতা, মুম্বইয়ের মতো হাইটেক সিটি।

তবে সবাই যে স্ট্রেস কাটানোর জন্যেই সিগারেট খান তা কিন্তু একেবারেই নয়। বরং তরুণ প্রজন্মের অনেকেই বলে থাকেন, নিজেদের ‘কুল’ ইমেজ বজায় রাখার জন্যই তাঁরা ঠোঁট ছোঁয়ান সিগারেটে। এই সমীক্ষায় যাঁরা অংশগ্রহণ করেছিলেন তাঁদের মধ্যে ৪০ শতাংশ মহিলা লাইট স্মোকার। দিনে একটা কিংবা দু’টো সিগারেটই তাঁদের কোটা। অনেক মহিলার আবার ছেড়েও দিয়েছেন সিগারেট। জানিয়েছেন, দীর্ঘদিনের অভ্যাস ছাড়তে বেশ বেগ পেতে হয়েছিল তাঁদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সিগারেট ছাড়তে সফল হয়েছেন তাঁরা।

Shares

Leave A Reply