মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২

গঙ্গা পেরোবেন, কিন্তু নদী দেখতে পাবেন না, মেট্রো যাত্রায় নতুন রোমাঞ্চ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের প্রথম মেট্রো চালু হয়েছিল কলকাতাতেই। এ বার শহরের মুকুটে জুড়তে চলেছে নতুন পালক। খুব তাড়াতাড়ি চালু হতে চলেছে আন্ডার ওয়াটার মেট্রো পরিষেবা।

জলের তলায় যে মেট্রো চলতে আর দেরি নেই সে কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রক। খুব শিগগির কলকাতার হুগলি নদীর তলা দিয়ে চালু হবে মেট্রো রেল পরিষেবা। বৃহস্পতিবার এ কথা জানিয়ে টুইট করেছেন কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। কেমন হবে জলের তলায় মেট্রোর যাত্রা তার আভাস দিয়ে এ দিন টুইট করে তিনি লিখেছেন, “খুব জলদিই কলকাতায় হুগলি নদীর তলায় মেট্রো রেলের যাত্রা শুরু হতে চলেছে। প্রযুক্তিগত উন্নতির এক দারুণ উদাহরণ হতে চলেছে এই পরিষেবা। এই পরিষেবা চালু হলে নিত্যযাত্রায় স্বস্তি পাবেন কলকাতার মানুষ। গর্বিত হবে গোটা দেশ।”

পীযূষ গোয়েলের শেয়ার করা ভিডিয়োতে আন্ডার ওয়াটার মেট্রোর টানেল বানানোর জন্য যে উন্নত মানের প্রযুক্তির ব্যবহার হয়েছে তা নিয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও। কোনও ভাবেই যাতে মেট্রোর মধ্যে জল ঢুকে কোনও অঘটন ঘটতে না পারে সে জন্য এই মেট্রোর বাইরে থাকবে চারটি স্তরের ‘প্রোটেকটিভ কভার’।

দু’ভাগে ভাগ হবে ১৬ কিলোমিটার এই আন্ডার ওয়াটার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর যাত্রা। ফার্স্ট ফেজের মেট্রো চালু হওয়ার কথা চলতি বছর অগস্ট মাসের শেষেই। সল্টলেক স্টেডিয়াম থেকে সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত চলবে এই মেট্রো। যাত্রীদেরও আশা ৫ কিলোমিটার এই রুটে মেট্রো চালু হলে দীর্ঘ সময়ের যাত্রাপথে সময় খানিকটা কমবে। আর একটি রুটের মেট্রো হাওড়া ময়দানের সঙ্গে জুড়বে সল্টলেক সেক্টর ফাইভকে। এই যাত্রাপথে গঙ্গার তলা দিয়ে যেটুকু অংশ পেরোতে হবে, তাতে সময় লাগবে এক মিনিট।

২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে শুরু হয়েছে এই আন্ডার ওয়াটার মেট্রোর কাজ। ৫২০ মিটার লম্বা টানেলে ৩০ মিটার গভীর দিয়ে চলবে মেট্রো। জার্মানি থেকে টানেল খননের জন্য আনা হয়েছিল অত্যাধুনিক বোরিং মেশিন। যাদের নাম দেওয়া হয়েছিল রচনা এবং প্রেরণা।

Comments are closed.