মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

ফের মেট্রোয় আত্মহত্যার চেষ্টা, অফিসটাইমে বন্ধ পরিষেবা, দুর্ভোগে নিত্যযাত্রীরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সাতসকালে ফের মেট্রোয় আত্মহত্যার চেষ্টা। অফিসে টাইমের ব্যস্ততার মধ্যেই বেলগাছিয়া মেট্রো স্টেশনে নোয়াপাড়াগামী মেট্রোর সামনে ঝাঁপ দেন বছর ২৬-এর এক যুবক।

মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে সঙ্গে সঙ্গে লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন করে তাঁকে উদ্ধার করা হয়েছে। আরজি কর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ওই যুবককে। তবে এখনও তাঁর পরিচয় জানা যায়নি। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। যাত্রীদেরও নামিয়ে আনা হয় ট্রেন থেকে। অফিস টাইমে এই ঘটনার জেরে দুর্ভোগে পড়েছেন নিত্যযাত্রীরা। নোয়াপাড়া থেকে গিরিশপার্কের মধ্যে দ্রুত পরিষেবা স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার সকাল ন’টা চব্বিশ নাগাদ এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনার জেরে আপ এবং ডাউন দুই লাইনেই নোয়াপাড়া থেকে গিরিশপার্ক পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে পরিষেবা। বাকি অংশে স্বাভাবিক রয়েছে মেট্রো চলাচল। জানা গিয়েছে, দুর্ঘটনার পর প্রাথমিক ভাবে বেশ কিছুক্ষণের জন্য আপ ও ডাউন লাইনের সব অংশেই বন্ধ হয়ে যায় ট্রেন চলাচল। এমনকী যাত্রী বিক্ষোভ এড়াতে বন্ধ করে দেওয়া হয় দমদম স্টেশনের টিকিট কাউন্টারও।

চলতি সপ্তাহের প্রথম দিনেই দু’টি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে মেট্রো স্টেশনে।

সোমবার সকাল ৮টা ১৪ মিনিট নাগাদ আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন এক তরুণী। দমদম থেকে কবি সুভাষগামী একটি মেট্রো তখন সেন্ট্রাল স্টেশনে ঢুকছিল। হঠাৎ করেই ট্রেনের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ইমারজেন্সি ব্রেক কষেন ড্রাইভার। মেট্রোর লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগও বন্ধ করা হয় সঙ্গে সঙ্গে। ফলে বেঁচে যান ওই তরুণী। তরুণীকে আহত অবস্থায় মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যান মেট্রোর নিরাপত্তারক্ষীরা। এর ফলে বেশ কিছুক্ষণ গিরিশ পার্ক থেকে ময়দানের মধ্যে মেট্রো পরিষেবা বন্ধ থাকে। ফলে বিপাকে পড়েন যাত্রীরা।

ওই একই দিনে সন্ধে সাড়ে সাতটা নাগাদ বেলগাছিয়া মেট্রো স্টেশনে ঘটে এই ঘটনা। দমদম থেকে কবি সুভাষগামী মেট্রোর সামনে ঝাঁপ দেয় ওই যুবক। সঙ্গে সঙ্গে মেট্রোর আরপিএফ কর্মীরা ওই যুবককে উদ্ধার করে নিয়ে যান আরজি কর হাসপাতালে। সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনার জেরে প্রায় আধঘণ্টা বন্ধ থাকে মেট্রো পরিষেবা। আটটার পর থেকে ফের তা স্বাভাবিক হয়। তবে অফিস ফেরত সময় হয় সমস্যায় পড়েন নিত্যযাত্রীরা।

Comments are closed.