বুধবার, নভেম্বর ২০
TheWall
TheWall

১১ দিনের বাচ্চা রেখে ডেঙ্গিতে মৃত্যু কলকাতা পুলিশের মহিলা কনস্টেবলের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল কলকাতা পুলিশের এক মহিলা কনস্টেবলের। মৃতের নাম রুনু বিশ্বাস (৩২)। তিনি আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় কর্মরত ছিলেন। বাগুইআটি অশ্বিনীনগরের বাসিন্দা রুনু ১১ দিন আগেই জন্ম দিয়েছিলেন সন্তানের। বুধবার ভোরবেলা বাইপাসের ধারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় রুনুর।

জানা গিয়েছে, সন্তান জন্ম দেওয়ার পরই অসুস্থ হয়ে পড়েন রুনু। তারপর তাঁকে ভর্তি করা হয় ভিআইপি রোডের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে বাইপাসের ধারের বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এদিন সকালে সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই তরুণী কনস্টেবল।

গত দেড় মাসে ব্যাপক হারে ডেঙ্গির প্রভাব বেড়েছে রাজ্যে। মঙ্গলবারও হাওড়ার চ্যাটার্জিহাটের বাসিন্দা কেয়া গোস্বামী নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এদিন মৃত্যু হল এই পুলিশ কনস্টেবলের। কয়েকদিন আগেই মশাবাহিত এই রোগী প্রাণ গিয়েছিল কলকাতা পুরসভার এক কর্মীর।

জানা গিয়েছে বাগুইআটির ওই এলাকায় আরও বেশ কয়েকজন ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়েছেন। সন্তান প্রসবের পরই জ্বর হয় রুনুর। রক্ত পরীক্ষাতে মেলে এনএস ওয়ান পজিটিভ। এরপর প্লেটলেট নামতে শুরু করে হুহু করে। অনেক চেষ্টা করেও বাঁচানো যায়নি তাঁকে।

স্বাস্থ্যভবন সূত্রে খবর গত দেড় মাসে রাজ্যে প্রায় ১১ হাজার মানুষ ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়েছেন। চিকিৎসকদের মতে, চরিত্র বদলাচ্ছে ডেঙ্গি। পরিবর্তন হচ্ছে রোগীর উপসর্গেও। সব মিলিয়ে ডেঙ্গি যেন দানবের আকার নিয়েছে বাংলায়।

Comments are closed.