মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

আড়াইয়ের শিশুকে ন’মাসের শিশুর টিকা দেওয়ার অভিযোগ লেডি ডাফরিন হাসপাতালে, বদলি করা হলো নার্সকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আড়াই মাসের শিশুকে ভুল টিকা দেওয়ার অভিযোগ উঠল কলকাতার লেডি ডাফরিন হাসপাতালের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, আড়াই মাসের শিশু কন্যাকে কর্তব্যরত নার্স ন’মাস বয়সের শিশুর জন্য নির্ধারিত টিকা দিয়ে দেন। ফলে অসুস্থ হয়ে পড়ে শিশুটি। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে ভর্তি করতে হয় কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে।

শিশুটির নাম অবন্তিকা সিং। বাড়ি বেলেঘাটার বরফ কলের কাছে। অবন্তিকার বাবা শ্যাম সিং জানিয়েছেন, গত ২৯ মে টিকা দিতে অবন্তিকাকে নিয়ে যাওয়া হয় লেডি ডাফরিন হাসপাতালের শিশুবিভাগে। সেখানেই কর্তব্যরত নার্স তাকে ন’মাস বয়সের শিশুর জন্য নির্ধারিত হামের টিকা দেয় এবং ভিটামিন এ খাইয়ে দেয়। তিনি জানান, এই টিকা দেওয়ার পরেই অবন্তিকার জ্বর আসে। ধীরে ধীরে নেতিয়ে পড়তে শুরু করে সে।

ঘটনার কথা জানিয়ে হাসপাতাল সুপারের কাছে অভিযোগ করেন তিনি। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সুপারিশেই শিশুটিকে ভর্তি করা হয় কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের আইসিইউ-তে। দু’দিন চিকিৎসা চলে তার। পরে ছেড়ে দেওয়া হয়। শিশুটির শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল।

অবন্তিকার বাবা শ্যামবাবুর কথায়, ‘‘দু’দিন ধরে মেয়েকে আইসিইউ-তে ভর্তি রাখতে হয়। নার্সের গাফিলতিতে বড় বিপদ ঘটতেই পারতো। আরও অনেক বেশি সতর্ক থাকা প্রয়োজন কর্ত্যরত নার্সদের। চাই না অন্য কারোর সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটুক। ’’

আড়াই মাসের শিশুকে ভুল টিকা দেওয়ার দাবিতে মুচিপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেন শ্যামবাবু। অভিযুক্ত নার্সের শাস্তির দাবিতে নার্সিং সুপারিন্টেন্ডেন্টের দফতরেও অভিযোগ জানানো হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, অভিযুক্ত ওই নার্সকে বদলি করে দেওয়া হয়েছে আলিপুরদুয়ার হাসপাতালে। ভুল টিকা দেওয়ার প্রসঙ্গে হাসপাতালের এক আধিকারিক বলেছেন, ‘‘ঘটনা ঘটেছিল। তবে অসুস্থতা অন্য কারণে। সংশ্লিষ্ট নার্সকে বদলি করা হয়েছে।’’

Comments are closed.