রবিবার, আগস্ট ১৮

বিজেপি-র লালবাজার অভিযানে ধুন্ধুমার, চলল জলকামান, কাঁদানে গ্যাস

দ্য ওয়াল ব্যুরো: যেমনটা ভাবা হয়েছিল হলও ঠিক তেমনটাই। বিজেপি-র লালবাজার অভিযান  ঘিরে ধুন্ধুমার বেঁধে গেল বিবি গাঙ্গুলী স্ট্রিটে। বিজেপি কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস থেকে জলকামান চালাতে হল পুলিশকে। গোটা সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ জুড়ে পুলিশের সঙ্গে জায়গায় জায়গায় খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায় পুলিশের।

বেলা একটা কুড়ি মিনিট নাগাদ ওয়েলিংটন স্কোয়ার থেকে শুরু হয় মিছিল। বিবি গাঙ্গুলী স্ট্রিটের মুখে ত্রিস্তরীয় ব্যারিকেড গড়ে আটকে দেওয়া হয় মিছিলকে। প্রথম ব্যারিকেড ভেঙে দেয় বিজেপি কর্মীরা। তারপরই শুরু হয় জল কামান চালানো।

সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে গত রবিবারই বিজেপি নেতৃত্ব এই কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিল। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। তাই কলকাতা পুলিশের সদর দফতরেই অভিযান করার সিদ্ধান্ত নেন দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, রাহুল সিনহারা।

সাময়িক ভাবে জমায়েতকে ছত্রভঙ্গ করা গেলেও, পুলিশের অনুমান ফের ধেয়ে আসতে পারেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। তাই ফের ব্যারিকেড তৈরি করেছে।

কর্মসূচির মাঝেই মিছিলের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন বিজেপি-র অন্যতম সাধারণ সম্পাদক রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়। দলীয় কর্মীরাই তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে যান। ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

সেন্ট্রাল মেট্রো স্টেশন থেকে লালবাজার যাওয়ার রাস্তায় বৌ বাজারের কাছে যে ব্যারিকেড তৈরি করে পুলিশ সেখানে বিজেপি কর্মীরা ইটবৃষ্টি করে বলেও অভিযোগ।

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “বেলা আড়াইটে নাগাদ পুলিশ ঘোষণা করে ৫০ হাজার লোককে গ্রেফতার করে মুক্তি দেওয়া হল। তাই আজ এই কর্মসূচি এখানেই স্থগিত। আগামী দিনে এই আন্দোলন চলবে।”

Comments are closed.