শনিবার, অক্টোবর ১৯

পাবজি খেলতে বাধা, বাবাকে কুপিয়ে খুন করল ছেলে!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাবজি খেলতে বাধা দেওয়ায় বাবাকে কুপিয়ে খুন করল ছেলে!

অনলাইন গেম পাবজি খেলার মারাত্মক নেশা ছিল ২৫ বছরের রঘুবীর কুম্বরের। এ নিয়ে নিত্যদিন অশান্তি লেগেই থাকত বাড়িতে। বাবা-মায়ের সঙ্গে হতো তুমুল ঝগড়া। ছেলেকে পাবজির নেশায় বুঁদ হতে বারণ করেছিলেন রঘুবীরের বাবা। তাই রাগের মাথায় বাবাকে কুপিয়ে খুন করল ছেলে।

এ ঘটনা ঘটেছে কর্ণাটকে। পাবজি খেলা নিয়ে অশান্তি করে ৬৫ বছরের বাবাকে কুপিয়ে খুন করেছে ২৫ বছরের ছেলে। জানা গিয়েছে মৃত ব্যক্তির নাম শঙ্করাপ্পা কুম্বর। তিনি ছিলেন একজন অবসরপ্রাপ্ত পুলিশকর্মী। রবিবারই ছেলে রঘুবীরের সঙ্গে পাবজি খেলা নিয়ে তুমুল ঝগড়া হয় শঙ্করাপ্পার। এরপরেই বাবার মাথা এবং পা কেটে তাঁকে খুন করে রঘুবীর। পরে পুলিশকে জেরায় সে জানিয়েছে নিরিবিলিতে বসে পাবজি খেলার জন্যই বাবাকে খুন করেছে সে।

অন্য আর একটি সূত্রের খবর, ছেলের পাবজি খেলা বন্ধ করতে বাড়ির ইন্টারনেট কানেকশন কেটে দিয়েছিলেন শঙ্করাপ্পা। লুকিয়ে রেখেছিলেন রঘুবীরের ফোনও। এরপরেই নাকি পরিবারের বাকি সকলকে একটা ঘরে বন্ধ করে দেয় রঘুবীর। তারপর কুপিয়ে খুন করে বাবা।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান রঘুবীর মানসিক ভাবে ভারসাম্যহীন। ইতিমধ্যেই খুনের দায়ে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চলছে জিজ্ঞাসাবাদ।

Comments are closed.