২৪ ঘন্টায় ভারতে ১ লক্ষ ১৫ হাজারেরও বেশি কোভিড টেস্ট হয়েছে : আইসিএমআর

২১

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে মোট ১,১৫,৩৬৪ জনের কোভিড টেস্ট করা হয়েছে। আর এ যাবৎ দেশে মোট ২৮,৩৪,৭৯৮ জনের কোভিড টেস্ট করা হয়েছে। শনিবার এমনটাই জানিয়েছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুসারে ভারতে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মোট ১,২৫,১০১। কোভিড-১৯ সংক্রমণে এ যাবৎ দেশে মৃত্যু হয়েছে ৩৭২০ জনের। আর সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৫১,৭৮৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৫৪ জন। এখনও পর্যন্ত এটাই সর্বাধিক বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৩৭ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৩২৫০ জন। দেশে এখন সুস্থতার হার প্রায় ৪২ শতাংশ (৪১.৩৯%)। আর অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৬৯,৫৯৭।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রেই করোনা আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সংক্রমণের প্রাথমিক পর্যায় থেকে নভেল করোনাভাইরাসের সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে মারাঠা প্রদেশে। সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ছড়িয়েছে মুম্বইতে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, মহারাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪,৫৮২। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১৫১৭ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২,৫৮৩ জন।

এরপরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারতের কোভিড পরিসংখ্যানে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে দক্ষিণের রাজ্য তামিলনাড়ু। এখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪,৭৫৩। মৃত্যু হয়েছে ৯৮ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৭১২৮ জন। তৃতীয় স্থানে রয়েছে পশ্চিমের রাজ্য গুজরাত। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩,২৬৮ জন। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৮০২ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৫৮৮০ জন। মৃতের সংখ্যার নিরিখে মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে গুজরাত। অর্থাৎ কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃতের সংখ্যার নিরিখে তামিলনাড়ু দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

অন্যদিকে রাজধানী শহর দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২,৩১৯। চতুর্থ স্থানে থাকা দিল্লিতে এ যাবৎ করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২০৮ জনের। আর সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৫৮৯৭ জন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More