রবিবার, অক্টোবর ২০

কেন পড়লেন গড়কড়ি? নিজেই দিলেন দু’রকম ব্যাখ্যা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একবার বললেন সুগার লেভেল নেমে গিয়েছে। নেমে গিয়েছে রক্তচাপও। তারপর আবার একটি সর্বভারতীয় ইংরাজি দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ওসব কিচ্ছু হয়নি। যা হয়েছে গরম থেকে! কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা নীতিন গড়কড়ি  দু’রকম বিবৃতি দেওয়ায় তাঁর মাথা ঘুরে, চোখ উল্টে পড়ে যাওয়ার কারণ নিয়ে তৈরি হলো কৌতূহল।

আরও পড়ুন এই প্রথম চাঁদের অন্ধকারাচ্ছন্ন অংশে নামতে চলেছে কোনও মহাকাশযান, চিনের Chang’e 4 রোভার

শুক্রবার মহারাষ্ট্রের আহমেদ নগরে মহাত্মা ফুলে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন গড়কড়ি। অনুষ্ঠানের একেবারে শেষ পর্বে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন মন্ত্রীমশাই। চোখ উল্টে যায়। তড়িঘড়ি চিকিৎসক ডাকা হয় তাঁকে সুস্থ করতে। বেশ খানিকক্ষণ পর স্বাভাবিক হন গড়কড়ি। নিজেই টুইট করে জানান, সুগার লেভেল এবং রক্তচাপ নেমে যাওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে।

অথচ ইংরাজি দৈনিকের সাক্ষাৎকারে নীতিন বলেছেন, “ওই হল-এ প্রচণ্ড গরম ছিল। তার মধ্যে সমাবর্তনের নিয়মানুযায়ী বিশেষ পোশাক পরানো হয়েছিল। দমবন্ধ হয়েই আমি পড়ে গিয়েছিলাম। আমার সুগার লেভেল এবং রক্তচাপ একদম ঠিক আছে।”

এমনিতেই নীতিন গড়কড়ির বলা কথা নিয়ে নিজের দলের মধ্যেই রং-রসিকতা কম হয় না! কিন্তু তাই বলে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে এমন কথা কেন? অনেকের মতে, রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীরা নিজেদের শারীরিক অসুস্থতার কথা মুখ ফুটে বলতে চান না। কারণ, এতে নাকি দুর্বলতা প্রকাশ পায়। শোনা যায়, বাংলার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর একবার জ্বর-সর্দি হয়েছিল। কিন্তু এক চিত্র সাংবাদিক সারাদিন জ্যোতিবাবুকে ফলো করেও রুমাল দিয়ে নাক মোছার ছবি তুলতে পারেননি। হতে পারে সেই কারণেই গড়কড়ি গড়িয়ে পড়ার পিছনে গরমকেই দায়ী করেছেন।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Comments are closed.