বুধবার, জুন ২৬

এই গ্রামের সব ছেলেরাই বিয়ে করেন দু’বার, কিন্তু কেন?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একাধিক বিয়ে আজকাল খুব একটা আহামরি ব্যাপার নয়। বলিউড সেলিব্রিটি থেকে আম আদমি, তালিকায় রয়েছেন সকলেই। তবে রাজস্থানের বাড়মেড় জেলায় পুরুষরা দু’টো বিয়ে করেন এক অদ্ভুত কারণে।

ইন্দো-পাক বর্ডারের খুব কাছেই রয়েছে রাজস্থানের বাড়মেড় জেলা। সেখানকার দেরাসর গ্রামে সব ছেলেরাই দু’বার বিয়ে করেন। ৭০টি মুসলিম পরিবার রয়েছে এই গ্রামে। জনসংখ্যা আনুমানিক ৬০০। আর গ্রামের সব পুরুষের বাড়িতেই রয়েছেন দু’জন বিবি। অনেকেই বলবেন, একের বেশি বিয়ে করার রীতি তো মুসলিমদের মধ্যে বহু পুরনো। এতে অবাক হওয়ার কী আছে? কিন্তু দেরাসর গ্রামের পুরুষদের এই দ্বিতীয় বিয়ের পিছনে রয়েছে এক বিশেষ কারণ।

এই গ্রামের পুরুষদের নাকি একবার বিয়ে হলে, প্রথম স্ত্রীর থেকে কোনওভাবেই সন্তানলাভ হয় না। কিন্তু দ্বিতীয় বিয়ের পরেই পরিবারে আসে নবজাতক। এমনকী কেউ কেউ দ্বিতীয়বার বিয়ের পর তিন সন্তানের বাবাও হয়েছেন। এমনটাই কথিত রয়েছে এই গ্রামে। আর দ্বিতীয়বার বিয়ে করলে তবেই সন্তানলাভ হবে, এই ধারনা দৃঢ় ভাবে বিশ্বাস করেন গ্রামবাসীরা। বলা ভালো এই অন্ধবিশ্বাস বা কুসংস্কার গেঁথে গিয়েছে তাঁদের মাথায় এবং মনে। আর সেই জন্যেই একুশ শতকেও এমন অদ্ভুত প্রথা বজায় রয়েছে এই গ্রামে।

রাজস্থানের অশিকাংশ এলাকাই সারা বছর জলকষ্টে ভোগে। দেরাসর গ্রামে সেই সমস্যা আরও বেশি। পানীয় জল সংগ্রহের জন্য গ্রামের মহিলাদের প্রায় ৫ কিলোমিটার হেঁটে যেতে হয়। গর্ভবতী অবস্থায় কোনও মহিলার পক্ষে এতটা হাঁটাচলা সম্ভব নয়। এবং ক্ষতিকরও বটে। তাই সেই সময়ে প্রতিটি পরিবারে থাকা আর এক জন স্ত্রী-ই ঘরের সব কাজ সামলান।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Comments are closed.