মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

নাগাড়ে বৃষ্টিতে বাতিল ইন্ডিগোর বিমান, ৭ ঘণ্টা প্লেনেই বসে রইলেন যাত্রীরা!  

  • 18
  •  
  •  
    18
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো: টানা বৃষ্টিতে বেহাল মুম্বই। ব্যাহত হয়েছে বিমান পরিষেবাও। বাতিল হয়েছে অসংখ্য উড়ান। কিন্তু এ সবের মধ্যেই ঘটেছে এক অদ্ভুত কাণ্ড। ইন্ডিগোর বিমানে ৭ ঘণ্টা বসিয়ে রাখা হয়েছে যাত্রীদের। মুম্বই থেকে জয়পুর যাচ্ছিল ওই বিমান। কিন্তু প্রবল বর্ষণের কারণে বুধবার রাতে বাতিল হয় উড়ান। যাত্রীদের অভিযোগ, তাঁদের কিছুতেই বিমান থেকে নামতে দেওয়া হয়নি। ফেরত যেতে দেওয়া হয়নি বিমানবন্দরে। বদলে প্রায় ৭ ঘণ্টা তাঁদের বসিয়ে রাখা হয়েছিল ওই প্লেনেই।

এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই ইন্ডিগো কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে ডিজিসিএ। কী কারণে অতক্ষণ যাত্রীদের প্লেনের মধ্যে বসিয়ে রাখা হলো তা জানতে শুরু হয়েছে তদন্ত। এক যাত্রী জানিয়েছেন, বুধবার রাত্রি ৭.৫৫ মিনিটে জয়পুরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা ছিল ইন্ডিগোর ওই বিমানের। কিন্তু তার বদলে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় রওনা হয় ওই বিমান। ৮টা নাগাদ পৌঁছে যায় জয়পুর। অভিযোগ, সারারাত প্লেনের মধ্যেই বসে থাকতে হয়েছিল যাত্রীদের।

যাত্রীদের তরফে আরও অভিযোগ রাতে কোনও খাবারের ব্যবস্থাও ছিল না। এ দিনে যাত্রীদের মধ্যে ছিলেন মহিলা এবং শিশুরাও। একটা সময়ের পর বাঁধ ভাঙে ধৈর্যের। টারম্যাকের কাছে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বেশ কিছু যাত্রী। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। সারারাত ওখানেই কাটাতে হয় যাত্রীদের। সাহায্যের জন্য কেউ কেউ ফোন করেছিলেন সিআইএসএফ-কেও। কিন্তু কোনও কিছুতেই সমস্যার সমাধান হয়নি।

ডিজিসিএ-এর এক উচ্চ পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। যাত্রীদের সঙ্গে ইন্ডিগো কর্তৃপক্ষ কেন এমন আচরণ করেছে সে ব্যাপারে জবাব চাওয়া হয়েছে এই বিমান সংস্থার কাছে। দোষীদের জন্য উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানিয়েছে ডিজিসিএ কর্তৃপক্ষ। এ দিকে পরিসংখ্যান বলছে, নাগাড়ে বৃষ্টির জেরে বহু উড়ানই বাতিল হয়েছে। তবে মুম্বইয়ের বিমানবন্দর থেকে যত বিমান বাতিল হয়েছে তার মধ্যে বেশিরভাগই ইন্ডিগোর।

Comments are closed.