শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১

এক্সিট পোল: মধ্যপ্রদেশে জবর লড়াই কংগ্রেস-বিজেপি-র, গদি উল্টোনোর আশঙ্কা শিবরাজের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুক্রবার তেলেঙ্গনা ও রাজস্থানে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হতেই পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের বুথ ফেরত সমীক্ষা প্রকাশ হতে শুরু করে দিল। এবং তাতে গোড়াতেই ইঙ্গিত মধ্যপ্রদেশে লড়াই হয়েছে সেয়ানে সেয়ানে।

শিবরাজ সিংহ চৌহানের নেতৃত্বে মধ্যপ্রদেশে গত ১৫ বছর ধরে বিজেপি সরকার চলছে। গত বিধানসভা ভোটেও রাজ্যের মোট ২৩০টি আসনের মধ্যে ১৬৫টিই জিতে নিয়েছিল বিজেপি। কংগ্রেস জিতেছিল মাত্র ৫৮টি আসন।

কিন্তু এ বার বুথ ফেরত সমীক্ষা জানাচ্ছে, মধ্যপ্রদেশে বিজেপি-র সুখের দিন হয়তো শেষ হতে পারে।

আরও পড়ুন: রথযাত্রা, রাজ্যের তিন কর্তাকে বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসার নির্দেশ দিল হাইকোর্ট

যেমন ইন্ডিয়া টুডে এক্সিসের বুথ ফেরত সমীক্ষা অনুযায়ী মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস পেতে পারে ১০৪ থেকে ১২২ টি আসন। বিপরীতে বিজেপি-র ঝুলিতে যেতে পারে ১০২ থেকে ১২০ টি আসন। তাদের মতে, লড়াই এমন কাঁটায় কাঁটায় হয়েছে যে শেষমেশ খুব সামান্য ফারাক তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

একই ভাবেই নিউজ এক্সের বুথ ফেরত সমীক্ষা জানাচ্ছে, মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস ১১২টি আসনে জিততে পারে। এবং সেক্ষেত্রে কংগ্রেসই হবে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল। বিজেপি জিততে পারে ১০৬টি আসন।

রিপাবলিক সংবাদ চ্যানেলের এক্সিট পোলের মতে, মধ্যপ্রদেশে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে কংগ্রেস-বিজেপি-তে। তাদের হিসাবে হিন্দিবলয়ের এই রাজ্যে এ বারের ভোটে কংগ্রেস পেতে পারে ৯০ থেকে ১১৫ টি আসন। অন্যদিকে ১১০ থেকে ১২৬ টি আসনে জিততে পারে বিজেপি।

যদিও টাইমস নাউ-সিএনএক্সের মতে, মধ্যপ্রদেশে স্বস্তিজনক ভাবে জিততে পারে বিজেপি। মোদী-অমিত শাহরা সেখানে পেতে পারেন ১২৬টি আসন। গতবারের তুলনায় শক্তি বাড়ালেও কংগ্রেসের দৌড় থেমে যেতে পারে ৮৯-তে।

তবে মধ্যপ্রদেশে এবিপি নিউজের সমীক্ষাতেও কংগ্রেসকে এগিয়ে রাখা হয়েছে। এবিপি নিউজ-সিএসডিএস এক্সিট পোলের মতে মধ্যপ্রদেশে ডাহা হারতে পারে বিজেপি। উল্টে কংগ্রেস স্যুইপ করতে পারে। শিবরাজ সিংহকে গদি থেকে সরিয়ে কংগ্রেস সেখানে জিতে নিতে পারে ১২৬ টি আসন। তুলনায় বিজেপি পেতে পারে মাত্র ৯৪টি আসন।

বুথ ফেরত সমীক্ষার ব্যাপারে একটা কথা পরিষ্কার জানিয়ে রাখা ভাল। তা হল, এ ধরনের সমীক্ষায় সব সময়েই যে সঠিক ফলাফল আন্দাজ করা যায় তা নয়। বুথ ফেরত সমীক্ষার সঙ্গে প্রকৃত ফলাফল মেলেনি এমন অনেক উদাহরণ রয়েছে। তবে সমীক্ষা মিলতেও দেখা গিয়েছে বেশ কয়েকবার। বিশেষজ্ঞদের মতে, বুথ ফেরত সমীক্ষা থেকে ভোট শতাংশের যে ইঙ্গিত পাওয়া যায় সেটাই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ তা থেকে মোটামুটি ভাবে একটা ট্রেন্ড বোঝা যায়। কিন্তু ভোট শতাংশ থেকে প্রকৃত সংখ্যা নির্ধারণ করার প্রক্রিয়া ত্রুটিমুক্ত নয়। সে দিক থেকে উল্লেখযোগ্য হল, মধ্যপ্রদেশে সমস্ত বুথ ফেরত সমীক্ষাই জানাচ্ছে বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে প্রাপ্ত ভোটের খুব কম বেশি হবে না। ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারকে সেখানে এ বার বেশ চাপে ফেলেছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন..

আর্যাবর্তে উঠছে হাত, গেরুয়া কি কুপোকাৎ?

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Comments are closed.