‘সব ছক কষা ছিল’! নিক-প্রিয়াঙ্কার বিয়ে নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নিক-প্রিয়াঙ্কার ভালোবাসা সত্যি তো? সম্প্রতি এই শিরোনামেই The Cut-ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে একটি আর্টিকল। যেখানে লেখিকা মারিয়া স্মিথ শুধু যে প্রিয়াঙ্কা এবং নিকের সম্পর্কের ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তাই নয়, রীতিমতো তুলোধনা করেছেন প্রিয়াঙ্কাকে। এমনকী দুই তারকার চরিত্র নিয়ে কাঁটাছেড়া করতেও পিছপা হননি মারিয়া। বরং বিশ্লেষণ করেছেন নিক জোনাস এবং প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে, তাঁদের বিয়েকে, তাঁদের সম্পর্ককে। মারিয়ার মতে প্রিয়াঙ্কার কাছে গোটা ব্যাপারটা প্রি-প্ল্যানড।

নিজের লেখায় প্রিয়াঙ্কার গায়ে তকমা এঁটে মারিয়া লিখেছেন, তিনি আধুনিক যুগের একজন দুর্নীতিগ্রস্ত শিল্পী। নিক নাকি তাঁর সঙ্গে খানিকটা ইচ্ছের বিরুদ্ধেই বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছেন। আর দু’জনের সম্পর্কের পুরোটাই নাকি ভুয়ো। এমনটাই দাবি করেছেন ওই লেখিকা।

আরও পড়ুন কনে হওয়ার লাল-টুকটুকে ইচ্ছে, প্রিয়াঙ্কাকে তাই পরালেন সব্যসাচী

কিছুদিন আগেই প্রিয়াঙ্কা জানিয়েছিলেন, সম্পর্ক হওয়ার আগে, এমনকী নিকের সঙ্গে ডেট করারও আগে তিনি নিককে জানিয়েছিলেন, নিকের যদি তাঁকে কিছু বলার থাকে সেটা যেন সরাসরি তাঁকেই বলেন। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নয়। কারণ নিজের ব্যক্তিগত বিষয় আর পাঁচজন জানুক সেটা চাননি প্রিয়াঙ্কা।

এই ব্যাপারেও দ্বিমত পোষণ করেছেন লেখিকা। মারিয়া লিখেছেন, নিক-প্রিয়াঙ্কার সম্পর্কের সবটাই নাকি হয়েছে টুইটারে। আর সে সময় নাকি ‘টিম প্রিয়াঙ্কা’ (যাঁরা নায়িকার সর্বক্ষণের সঙ্গী) জানিয়েছিল সম্ভবত নিক তাঁর হৃদয় ভাঙবেন। এরপরেই নাকি হলিউড তারকাদের একটা লিস্ট বানান প্রিয়াঙ্কা এবং তাঁর টিম। সেখানে ছিল হলিউডের প্রথম সারির অনেক তারকাই যাঁদের সঙ্গে রোম্যান্স করতে চাইতেন প্রিয়াঙ্কা। মারিয়ার আপত্তিজনক শব্দ থেকে রেহাই পাননি নিকও। তিনি লিখেছেন, বরাবরই বয়সে বড় মহিলাদের প্রতি আকৃষ্ট নিক জোনাস। সেই তরুণ বয়স থেকেই। আর সেটাকেই নাকি কাজে লাগিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা।

টুইটারে নিজের লেখার লিঙ্ক শেয়ার করেছেন মারিয়া। আর তারপরেই উঠেছে সমালোচনার ঝড়। ভীষণ ভাবে বিরক্ত হয়েছেন অভিনেত্রী সোনম কাপুর। প্রিয়াঙ্কাকে এ ভাবে শিকার হতে দেখে সরব হয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন তীব্র প্রতিবাদ। টুইট করে লিখেছেন, “এই লেখা একজন মহিলা লিখেছেন। এটা ভাবতেই সবচেয়ে অবাক লাগছে।“ মারিয়ার লেখনীকে লিঙ্গবৈষ্যম্য, বর্ণবিদ্বেষ এবং বিরক্তিকর বলেও মন্তব্য করেছেন সোনম। তবে শুধু সোনম নন, সরব হয়েছেন আরও অনেকেই।

নিজের লেখায় প্রিয়াঙ্কার সমস্ত কৃতিত্ব এবং অ্যাচিভমেন্টের কথা এড়িয়ে গিয়েছেন মারিয়া। ৫০টিরও বেশি বলিউড ছবিতে কাজ করা প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া বর্তমানে হলিউডেও পাকা করেছেন তাঁর জমি। নিজের মিউজিক কেরিয়ারের পাশাপাশি তাঁর মুকুটে জুড়েছে কোয়ান্টিকো এবং বে-ওয়াচের মতো সিরিজের পালক। কিন্তু প্রিয়াঙ্কার এই সব সাফল্যের কথা একবারের জন্যেও নিজের লেখায় তুলে ধরেননি মারিয়া। বরং ব্যস্ত ছিলেন তাঁকে অপমান করতে। আর এতেই বেজায় চটেছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলেছেন, দক্ষিণ-এশিয়ার এক মেয়ের এ ভাবে হলিউডে দাপিয়ে বেড়ানোটা স্বাভাবিক ভাবে মেনে নিতে পারেননি মারিয়া। এমনকী প্রিয়াঙ্কা নিজের পছন্দের জীবনসঙ্গী খুঁজে পাওয়াতেও বোধহয় বেজায় বিরক্ত হয়েছেন লেখিকা। আর হয়তো সেই বিরক্তি থেকেই এত বিরক্তিকর একটা লেখা তিনি লিখতে পেরেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল শুরু হতেই অবশ্য নিজেদের ওয়েবসাইট থেকে মারিয়া স্মিথের এই লেখাটি তুলে নেয় The Cut কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে, এই লেখা তাদের ওয়েবসাইটের মানের সঙ্গে খাপ খায় না। তাই ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে এই লেখা। এবং এই ঘটনার জন্য তারা ক্ষমাপ্রার্থী।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More