শনিবার, অক্টোবর ১৯

‘যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে, আশা নয়’, ইসরোকে কুর্নিশ বলিউডের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ল্যান্ডিংয়ের কয়েক মুহূর্ত আগেই নিখোঁজ হয়ে গিয়েছে ল্যান্ডার বিক্রম। পাওয়া যায়নি সংকেত। এরপর থেকে বারবার ঘুরেফিরে আসছে একটাই প্রশ্ন, তাহলে কী সফল হয়নি চন্দ্রযান-২ -এর অভিযান!

যদিও আমজনতা থেকে সেলেব দুনিয়া, এ কথা মানতে নারাজ সকলেই। প্রত্যেকেই একবাক্যে স্বীকার করেছেন, অসাধ্য সাধন করেছেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা। চাঁদের অজানা দক্ষিণ দিকে যাওয়ার যে সাহস দেখানো হয়েছে, তার জন্যই ইসরোর বিজ্ঞানীদের কুর্নিশ জানিয়েছেন সমস্ত ভারতবাসী।

শনিবার সকালেই জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই ইসরোর বিজ্ঞানীদের উদ্দেশে মোদী বলেন, গত রাতে আমি আপনাদের মনের অবস্থা বুঝেছি। আপনাদের চোখের দিকে চেয়েই অনেক কিছু বোঝা যাচ্ছিল। আমরা চন্দ্রপৃষ্ঠে পৌঁছতে পারিনি। কিন্তু চাঁদের কাছাকাছি গিয়েছিলাম। মন শক্ত করুন। সামনের দিকে তাকান। আমি নিশ্চিত, আগামী দিনে আমরা মহাকাশে গুরুত্বপূর্ণ সাফল্য অর্জন করব।

আরও পড়ুন- ‘সাফল্য আসবে, ধৈর্য ধরো’ ইসরোর পাশে গোটা দেশ, উৎসাহের বার্তা টুইটারে

একই মত বলিউড তারকাদেরও। শাহরুখ খান থেকে অক্ষয় কুমার কিংবা ফারহান আখতার বা অমিতাভ বচ্চন, সকলেই বলছেন এ মুহূর্ত বিষন্নতার নয়, বরং গর্বের। দেশের বিজ্ঞানীরা যে সাহস দেখিয়েছেন তাকে কুর্নিশ। চাঁদের দক্ষিণ মেরুর এত কাছাকাছি যে ল্যান্ডার বিক্রম পৌঁছতে পেরেছে সেটাও কম সাফল্যের বিষয় নয়। সকলেই আশা রাখছেন, হয়তো আগামী দিনে আসবে কোনও সুখবর। হদিশ মিলবে হারিয়ে যাওয়া ল্যান্ডার এবং রোভারের। আর আগামী দিনে মহাকাশে যে ইসরো ব্যাপক সাফল্য পাবে এ ব্যাপারেও নিশ্চিত কোটি কোটি ভারতবাসী। কথিত আছে, আব্দুল কালাম বলতেন, বিজ্ঞানে কোনও কিছুই ব্যর্থতা নয়, সবই এক্সপেরিমেন্ট। প্রতি পদক্ষেপেই নতুন কিছু শেখা যায়, যা আগামী দিনে এগোতে সাহায্য করে।

এই একই ভাবনায় বিশ্বাসী শাহরুখ খানও। টুইট করে কিং খান লিখেছেন, “অনেক সময় আমরা অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে পারি না। কিন্তু লক্ষ্যে পৌঁছনোর জন্য যে চেষ্টা করা হয় সেটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আজকের পরিস্থিতিই চূড়ান্ত নয়। আগামী দিনে আরও গর্বের দিন আসবে এই আশাই রাখছি। ইসরোর বিজ্ঞানীদের জন্য আমরা সকলেই গর্বিত।”

টুইট করেছেন অমিতাভ বচ্চনও। বাবা হরিবংশ রাইয়ের বিখ্যাত কবিতা ‘অগ্নিপথ’-এর লাইন উদ্ধৃত করে বিগ বি লিখেছেন, “গর্ব কখনও হারের সম্মুখীন হয় না। এই মুহূর্ত সমগ্র দেশবাসীর জন্য গর্বের এবং জয়ের।”

অক্ষয় কুমার লিখেছেন, “এক্সপেরিমেন্ট ছাড়া বিজ্ঞান সম্ভব নয়। কখনও আমরা সফল হই। কখনও নতুন কিছু শিখি। ইসরোর বিজ্ঞানীদের কুর্নিশ। এই মুহূর্ত খুবই গর্বের। আমরা নিশ্চিত চন্দ্রযান-২-এর সাফল্য চন্দ্রযান-৩-এর রাস্তা মসৃণ করবে।”

টুইট করেছেন ফারহান আখতার, তাপসী পান্নু, র‍্যাপার বাদশা, করণ জোহর এবং স্বরা ভাস্করও। টুইট করে ফারহান লিখেছেন, “সাফল্য এবং ব্যর্থতা আসবে এবং চলে যাবে। কিন্তু সফল হওয়ার জন্য যে প্রচেষ্টা সেটাই থেকে যাবে এবং সেটাই আসল। বাদশা লিখেছেন, “যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে, কিন্তু আশা কমেনি একটুও।” মোট কথা টুইটার থ্রেডে সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রিটি, সকলেই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইসরোর বিজ্ঞানীদের। দিয়েছেন পাশে থাকার বার্তা। সকলেই বলছেন, চন্দ্রযান-২-এর অভিযান দেশবাসীর জন্য গর্বের, আনন্দের এবং জয়ের মুহূর্ত।

Comments are closed.