বুধবার, নভেম্বর ১৩

‘এমন ভুঁড়ি নিয়ে আবহাওয়ার খবর পড়ো!’ বডি-শেমিং-এর জবাবে মার্কিন সাংবাদিক কী বললেন জানেন?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সুন্দরী সাংবাদিক ট্রেসি হিনসন। আবহাওয়াবিদও বটে। সঞ্চালক হিসেবে বেশ নামডাক আছে ট্রেসির। তাঁকেও কিনা বডি শেমিং-এর খপ্পরে পড়তে হল! ছিছিক্কার পড়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। টুইটারাইটরাতো রীতিমতো চোখ রাঙিয়ে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। তবে ট্রেসি শান্ত। বেশি উচ্ছাস দেখাননি। হাসিখুশিভাবেই ট্রোলিংয়ের সপাটে জবাব দিয়েছেন।

ট্রেসি হিমসনের বডি শেমিং নিয়ে টুইটার-ফেসবুকে যুদ্ধের সূত্রপাত গত ১২ অক্টোবর। টুইটারে ট্রেসিকে ট্যাগ করে একজন লেখেন, “আবহাওয়ার খবর পড়তে পড়তে কখনও নিজের ভুঁড়ির দিকে তাকিয়েছো? তোমার তো একটা ভুঁড়ি-গার্ড লাগবে। অথবা এমন পোশাক পরো যাতে বাইরে থেকে তোমার ফোলা পেট দেখা না যায়।”

এই টুইট ভাইরাল হয়ে যায় নিমেষে। অনেকে হাসিমজা শুরু করেন। ট্রেসির ছবি নিয়ে মিমও তৈরি হয়ে যায়। আবার অনেট টুইটারাইটই এমন কুৎসিত বডি শেমিং-এর প্রতিবাদ জানান। ক্ষমা চাইতে বলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় যখন এমন যুদ্ধ চলছে ট্রেসি যথেষ্ট মার্জিতভাবে, নিজের সংযম ধরে রেখেই নিজের টুইটারে লেখেন, “হ্যাঁ তুমি ঠিকই বলেছো। আমার ভুঁড়ি কতটা সেটা আমি জানি। তবে শুধুমাত্র তোমার ভালোলাগার জন্য আমি আমার পেট ঢেকে রাখব, এমনটা ভাবার কোনও কারণ নেই।” সেই সঙ্গেই ট্রেসি বলেন, “আমি খেতে খুব ভালোবাসি। পাস্তা, পাঁউরুটি-চিজ আমার পছন্দের। আমার চেহারা যেমনই হোক না কেন, আমার তাতে কোনও অসুবিধা নেই। আমি আমার মতো করেই খুশি।”

ট্রেসির জবাবের প্রশংসা করেন অনেকেই। টুইটারাইটদের অনেকেই বলেন, জনপ্রিয় মহিলাদের ভাইটাল স্ট্যাটস সম্পর্কে আগ্রহ চিরকালীন। তাঁদের শরীরী চাকচিক্য দেখে অনেক পুরুষই ভাবনার বিলাসিতায় শান দেন। তাঁদের সঙ্গে যোগ দেন মহিলারাও। উচ্চাকাঙ্খী মহিলারা সেসবে বিশেষ পাত্তা দেননা। নিজের মতো করেই নিজেদের গড়ে তোলার সংকল্প নেন তাঁরা। ট্রেসিও তেমনই একজন।

পড়ুন দ্য ওয়াল-এর পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

Comments are closed.