বুধবার, নভেম্বর ২০
TheWall
TheWall

সকাল থেকেই চড়া রোদ, তীব্র অস্বস্তি, আবহাওয়া দফতর বলেছিল সপ্তাহ শেষে ভাসবে শহর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হাওয়া অফিস বলেছিল সপ্তাহ শেষে ভাসবে শহর। কিন্তু শুক্রবার সকাল থেকেই দেখা নেই বৃষ্টির। মেঘলা আকাশ অনেক দূরের কথা। বরং বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই চড়চড় করছে বাড়ছে পারদ। রোদের তেজ দেখে মনে হচ্ছে এ যেন জৈষ্ঠ্যের কাঠফাটা দুপুরে। সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। ঘেমেনেয়ে একসা হচ্ছেন কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলার বাসিন্দারা।

শুক্রবার কলকাতার তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রিয়েল ফিল প্রায় ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। গত কয়েকদিন শহরের তাপমাত্রা ঘোরাফেরা করছিল ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যেই সঙ্গে চলছিল মাঝারি থেকে হাল্কা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিও। তবে শুক্রবার একলাফে তাপমাত্রা বেড়েছে প্রায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ দিকে আকাশ মেঘলা থাকায় এবং বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকার কারনে ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল হচ্ছেন দক্ষিণবঙ্গবাসী।

আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে আপাতত সরে গিয়েছে নিম্নচাপ। দক্ষিণ উত্তরপ্রদেশ এবং লাগোয়া উত্তর-পূর্ব মধ্যপ্রদেশ বরার এখন অবস্থা করছে নিম্নচাপ। শক্তি কমেছে ঘূর্ণাবর্তেরও। তাই বৃষ্টির পরিমাণ খুব বেশি হবে না। বরং দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় মাঝারি থেকে হাল্কা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আগামী ২৯ তারিখ পর্যন্ত দুই বঙ্গেই ভারী বৃষ্টি সংক্রান্ত কোনও পূর্বাভাস নেই। বরং স্বাভাবিকের তুলনায় সামান্য কম পরিমাণে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

তবে দিনের বেলা তীব্র গরমে হাঁসফাঁস করলেও বিকেলের পর সামান্য বৃষ্টিতে সাময়িক স্বস্তি মিলতে পারে বলে পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের।

Comments are closed.