শনিবার, নভেম্বর ২৩
TheWall
TheWall

কানে ব্যথা, কম শুনছেন, অবহেলা নয়, কী করবেন জেনে নিন

দ্য ওয়াল ব্যুরো : পুজোর ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছে শ্রেয়া। বাড়ির পিছনেই পুকুর। মনের আনন্দে স্নান করে ওঠার পরেই কানে ব্যথা। স্নান করতে গিয়ে কোনও ভাবে জল ঢুকে গিয়েছে কানে। কান ভারী ভারী লাগছে, কথা কম শুনছে, সে এক অন্য রকমের অনুভূতি শ্রেয়ার। বড়দের পরামর্শে এক কান চাপা দিয়ে অন্য কান ঝুঁকিয়ে অনেক চেষ্টাতেও কিছু হল না। কটন বাড দিয়েও খোঁচাখুঁচি হল। কিছুতেই ব্যথা কমে না। অগত্যা ডাক্তারের কাছে যাওয়া।

ডাক্তার কানের ভিতর আলো ফেলে দেখলেন কানের ময়লা, সাবান-শ্যাম্পু আর জল মিলে পর্দার ঠিক বাইরে একটা আস্তরণের সৃষ্টি করেছে। খোঁচাখুঁচি করায় খানিকটা ক্ষতিও হয়েছে কানের ভিতরে। অবশেষে ডাক্তার সেই ময়লা বের করলেন, ওষুধ দিলেন। তারপর ব্যথার উপশম হল।

শুধু শ্রেয়া নয়, এই অভিজ্ঞতা প্রত্যেকেরই হয়তো কখনও না কখনও হয়েছে। স্নান করতে গিয়ে জল ঢুকে গিয়েছে। আবার কিছুক্ষণ পরে নিজে থেকেই ঠিক হয়ে গিয়েছে। কেউ আবার শ্রেয়ার মতোই কান ঝাঁকিয়ে কিংবা কটন বাড দিয়ে জল বের করার চেষ্টা করছেন। এটা কিন্তু মোটেই হেলাফেলা করার বিষয় নয়। কারণ এরকম হলে প্রথমে কানে ভারী ভারী ভাব হয়, কান থেকে তৈলাক্ত পদার্থ বের হতে পারে, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ব্যথাও হতে পারে। আর যদি বেশ কিছুদিন সেই জল ঢুকে থাকে তাহলে শ্রবণশক্তিও কমে যেতে পারে। তাই সাবধান হন।

ভয় পাওয়ার কিছু নেই। কানের এ রকম অবস্থার চিকিৎসা খুবই সহজ। ডাক্তারের কাছে গেলেই তিনি সাকশান মেশিনের মাধ্যমে কানের জমে থাকা ময়লাগুলো বের করে দেন। তারপর ওষুধ দেন। কিন্তু এই অবস্থায় নিজে এটা-ওটা দিয়ে কান খোঁচাবেন না। তাতে কানের পর্দা ফেটে যেতে পারে। তাই এ ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়।

কেন দেখা দেয় কানে এই সমস্যা? শুধুমাত্র জল ঢুকলে তবেই? না, জল ঢোকা ছাড়াও কানে ব্যথা হতে পারে। দেখে নিন কারণগুলো

  • কানে জল ঢুকে বেশ কিছুক্ষণ ভিতরে থেকে গেলে
  • কোনও কারণে কানের পর্দা ফেটে গেলে
  • কানের মধ্যে হাড়ে আঘাত লাগলে
  • কানের ভিতরে বেশি ময়লা জমলে
  • বাচ্চাদের ক্ষেত্রে বেশি কাঁদলে চোখের জল অনেক সময় বাচ্চা শুয়ে থাকলে গড়িয়ে কানে ঢুকে যায়। ভিতরে জমে একটা আস্তরণ তৈরি করতে পারে। সেক্ষেত্রেও খুব ব্যথা হয়।

এই পরিস্থিতিতে কী করবেন?

  • প্রথমেই ডাক্তারের কাছে গিয়ে সমস্যার কথা খুলে বলুন। কানের ফুটো দিয়ে ময়লা বা জল জমলে তা বের করে দেবেন তিনি।
  • যদি পর্দা ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে তা ঠিক করার জন্য অস্ত্রোপচার করতে হবে।
  • হাড়ে আঘাত লাগলে তাও অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সারানো হম্ভব।
  • সবসময় কান পরিষ্কার রাখুন। কটন বাড ব্যবহার করুন। অন্য কোনও কাঠি জাতীয় কিছু ব্যবহার করবেন না।
  • কানে হেডফোন লাগিয়ে খুব জোরে কিছু শুনবেন না। সেক্ষেত্রে ধীরে ধীরে কানের উপর প্রভাব পড়ে।

খেয়াল রাখবেন শরীরের অন্যান্য ইন্দ্রিয়ের মতো কানও খুব স্পর্শকাতর একটি অঙ্গ। তাই নিজে কিছু করতে যাবেন না। আপনার বা বাড়ির কারও কানে সমস্যা হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। নইলে বড় বিপদ হতে পারে।

পড়ুন, দ্য ওয়ালের পুজো ম্যাগাজিনে প্রকাশিত গল্প…..

Comments are closed.