বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১
TheWall
TheWall

তাঁকেই করা হোক মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যের কৃষকসমস্যা সমাধানে প্রস্তাব জানিয়ে চিঠি

দ্য ওয়াল ব্যুরো:  বিজেপি-শিবসেনা জোটের দুই শরিকের অনড় অবস্থানের জেরে মহারাষ্ট্রে যখন রাষ্ট্রপতি শাসনের আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে, তখন নতুন এক সমাধানসূত্র নিয়ে চিঠি।  চিঠিটি মহারাষ্ট্রের বিদের জেলাশাসকের কাছে জমা করেছেন শ্রীকান্ত বিষ্ণু গড়ালে।

বিদ জেলার কেজ তালুকের বড়মৌলি গ্রামের বাসিন্দা শ্রীকান্ত বিষ্ণু গড়ালে।  তিনি কৃষক।  রাজ্যে কৃষিসমস্যা বেশ বড়।  এই অবস্থায় গড়ালের প্রস্তাব, তাঁকেই করা হোক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।  বৃহস্পতিবারই তিনি লিখিত ভাবে এই প্রস্তাব করেছেন।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন: “২০১৯ সালের নির্বাচনের পরে শিবসেনা ও বিজেপি এখনও মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে তাঁদের দ্বন্দ্ব মেটাতে পারেননি।  প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে (অসময়ের বৃষ্টি) ফসলের রাজ্যে ক্ষতি হচ্ছে।  প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখে কৃষকরা এখন চিন্তায়।  কৃষকরা যখন সঙ্কটের ভাবনায় উদ্বিগ্ন, তখন শিবসেনা ও বিজেপি লড়াই করছে মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে।  যতক্ষণ এই সমস্যার সমাধান না হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত আমাকেই মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব দিন রাজ্যপাল। ”

চিঠিতে তিনি কৃষকদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

এই চিঠিই জেলাশাসকের কাছে পাঠিয়েছেন কৃষিজীবী গড়ালে।

যদি প্রশাসন তাঁর চিঠির ব্যাপারে যথাযত পদক্ষেপ না করে, তা হলে তিনি গণতান্ত্রিক পদ্ধতি মেনেই প্রতিবাদ জানাবেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছেন গড়ালে।

আড়াই বছর তাদের মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে হবে বলে বিজেপির কাছ থেকে লিখিত চায় শিবসেনা, উল্টোদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়ণবীশও জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী পাঁচ বছর তিনিই থাকবেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আর যেই হোন না কেন, আপাতত সেই আসনে বসার সম্ভাবনা নেই গড়ালের।  কিন্তু তাঁর চিঠিতে একটি বিষয় স্পষ্ট হয়ে গেছে, রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনে জেতার জন্য নানা ধরনের প্রতিশ্রুতি দিলেও, রাজ্যের সমস্যা মেটানোর চেয়ে ক্ষমতা ধরে রাখা তাদের কাছে অনেক বেশি প্রাধান্য পায়।  তাই উপকূল জুড়ে যখন প্রাকৃতিক দুর্যোগ চলছে, ফসল বোনার সময় যখন কৃষকরা চরম উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন, তখন তাঁদের ভোটে রাজ্যের বৃহত্তম জোট হিসাবে আত্মপ্রকাশ করা বিজেপি-শিবসেনা এখন লড়াই করছে মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে।

রাজ্যের কৃষকদের জন্য ভাবনা, দুর্গতদের জন্য ভাবনা নয়, এখন তাঁদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল মুখ্যমন্ত্রী পদের লড়াই।  দেবেন্দ্র ফড়ণবীশ মুখ্যমন্ত্রী থাকুন বা আদিত্য ঠাকরে মুখ্যমন্ত্রী হোন, রাজ্যের মানউষের দুর্গতি নিয়ে তাঁদের উদ্বেগ রাজ্যের মানুষ বুঝে গেছেন এই ক’দিনেই।

পড়ুন দ্য ওয়ালের পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯-এ প্রকাশিত গল্প: প্রতিফলন

http://www.thewall.in/pujomagazine2019/%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%ab%e0%a6%b2%e0%a6%a8/

Comments are closed.