শাহরুখ না সলমন, কাকে বাছলেন আমির? উত্তর মিলবে করণ জোহরের কফির আড্ডায়

১১

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুরু হয়ে গিয়েছে ‘কফি উইথ করণ’-এর নতুন সিজন। প্রোমোতেই যথেষ্ট জল্পনা ছড়িয়েছে এই শো। এমনিতেও ছোটপর্দার এই টক-শো নিয়ে নানা মুনির নানা মত। কেউ বলেন ভালো, তো কেউ বলেন খারাপ। কারোও মতে করণের অতি নাটুকে ভাবভঙ্গি মেনে নেওয়া যায় না। আবার কারোও মতে এই শোয়ে যত তারকাই আসুন না কেন ইউএসপি একমাত্র করণ জোহর। তবে সিজন ওয়ান থেকে এখনও পর্যন্ত (সিজন ৬) একটা জিনিস বজায় রেখেছেন করণ। শোয়ের জনপ্রিয়তা। ভালো বলুন বা খারাপ, ড্রয়িংরুমে কিন্তু ‘কফি উইথ করণ’-এর গিফট হ্যাম্পার নিয়ে আলোচনা হবেই। লোকে হাজার নিন্দে করলেও একবার টিভিটা চালিয়ে দেখবেনই। আর এখানেই ভীষণ ভাবে সফল করণ জোহর।

ইতিমধ্যেই রিলিজ হয়েছে একটি প্রোমো। যেখানে দেখা যাচ্ছে করণের কফির আড্ডায় এসেছেন আমির খান। আর এই আড্ডাতেই হাজির থাকবেন মালাইকা অরোরা। মালাইকা আমিরকে জিজ্ঞাসা করেছেন, যদি আমির, শাহরুখ এবং সলমন একটি নৌকায় থাকেন, এবং সেখান থেকে শাহরুখ এবং সলমনের মধ্যে কাউকে ফেলে দিতে হয় তাহলে কাকে ফেলে দেবেন আমির? শাহরুখ এবং সলমনের মধ্যে কাকে বেছে নেবেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট। জবাবে আমির কী বলবেন তা অবশ্য জানা যাবে এপিসোডেই। তবে এই প্রশ্ন সামনে আসার পরেই দুভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে বলিউড। একদিকে রয়েছেন ভাইজানের ফ্যানরা। অন্যদিকে কিং খানের। আর নিজেদের পছন্দের স্টারকে জেতাতে মরিয়া সকলেই। তবে আমির অনুরাগীরা বলছেন কাউকেই বেছে নেবেন না তিনি। বরং দারুণ কিছু একটা জবাব দেবেন এই প্রশ্নের। বি টাউনে তিন খানের সম্পর্কের রসায়ন কারোও অজানা নয়। কখনও একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেননি এই তিন তারকা। এমনকী শাহরুখ-সলমন এবং আমির-সলমন একসঙ্গে কাজ করলেও, আমির এবং শাহরুখকে একসঙ্গে কোনওদিন দেখা যায়নি বড় পর্দায়। অতএব করণের প্রশ্ন কী নতুন কোনও ইঙ্গিত দিচ্ছে তা জানার জন্য এখন শুধুই সময়েই অপেক্ষা। তবে বলিউড সবসময়ই পজিটিভ মনোভাবে বিশ্বাসী। তাই এ বার একসঙ্গে তিন খানের অ্যাপিয়ারেন্স দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন দর্শকরা।

সম্প্রতি এই শোয়ে গিয়েছিলেন রণবীর সিং। তাঁর জুড়িদার ছিলেন অক্ষয় কুমার। সেই এপিসোডে করণের বাউন্সিং প্রশ্নের জবাবে রণবীরের স্ট্রেট ব্যাটে ছক্কা হাঁকানো মনে ধরেছে দর্শকদের। সেই জন্যেই ইউটিউবে এখন ট্রেন্ডিং কফি উইথ করণের ওই এপিসোডের বেশ কিছু ভিডিও। কিন্তু কী এমন বললেন রণবীর যে আবারও তাঁর সেন্স অফ হিউমারে মুগ্ধ হলেন দর্শকরা। রণবীর জানিয়েছেন ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-র সিক্যুয়েল হলে সেখানে দীপিকা এবং আলিয়ার সঙ্গে অভিনয় করতে চান তিনি। রণবীরের এই জবাবের পর থেকেই টিনসেল টাউনে শুরু হয়েছে জল্পনা। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-র ২০ বছর ধুমধাম করে সেলিব্রেট করেছেন ছবির পরিচালক এবং কলাকুশলীরা। আর তারপরেই রণবীরের এই মন্তব্যে দুইয়ে দুইয়ে চার করে নিয়েছেন নেটিজেনরা। একটা বড় অংশের মানুষ মনে করছেন খুব তাড়াতাড়িই হয়তো ছবির সিক্যুয়েলের কথা ঘোষণা করবেন করণ।

 

https://www.instagram.com/p/Bpe92KqhR5Z/?taken-by=bollywood_tellywoodfanatic

তবে এখানেই শেষ নয়। আরও বলেছেন রণবীর। করণ তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন বলিউডের তিন খান শাহরুখ, সলমন এবং আমিরের মধ্যে কার সঙ্গে অভিনয় করতে চান রণবীর। উত্তরে রণবীর বলেন তিনি অন্য একজন খানকে বেছে নিতে চান। আর সেই খান হলো তৈমুর। রণবীর বলেন, তৈমুরের বাবা হতে চান। না না বাস্তবে নয়। অনস্ক্রিন বাবা। মানে খুদে নবাব যদি সিনেমায় অভিনয় করতে আসেন তাহলে তাঁর বাবার চরিত্রে অভিনয় করতে চান রণবীর সিং। এ ছাড়াও তিনি বলেন, “তৈমুর যখন অভিনয় করবে তখন আমি বুড়ো হয়ে যাবো। আমার বৃদ্ধ বয়সের সহায় হবে তৈমুর।” এই নিয়েও বলিউডে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। এমনিতেই তৈমুর যথেষ্ট ক্যামেরা ফ্রেন্ডলি। এয়ারপোর্টের বাইরেই হোক বা নিজের বাড়ির বারান্দায়, কিংবা প্লে স্কুলে যাওয়ার সময়—-সব ক্ষেত্রেই ক্যামেরার সামনে তৈমুর সপ্রতিভ। যদিও এ বার থেকে পাপারাৎজিকে তৈমুরের ছবি তুলতে নিষেধ করেছেন সইফ এবং করিনা। সইফিনা জুটির বক্তব্য ছেলেকে একটা সুস্থ, স্বাভাবিক শৈশব দিতে চান তাঁরা। আর তাই মিডিয়ার প্রতি এই অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁরা, যাতে কেউ আর তৈমুরের ছবি না তোলেন। তবে রণবীর সিং, তৈমুরের অনস্ক্রিন বাবা হতে চাওয়ার ফলে বলিউড প্রেমীরা এটাই ভাবছেন যে আর কদিন পরেই হয়তো শিশুশিল্পী হিসেবে বড় পর্দায় দেখা যাবে তৈমুরকে।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More