সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘টপলেস’ ছবি দিয়ে নেটিজেনদের রোষের মুখে কাজলের বোন তানিশা

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো : বলিউডে ততটা ছাপ না ফেলতে পারলেও বারবার বিতর্কে উঠে এসেছেন তিনি। সে বিগ বসে অংশগ্রহণের পর অভিনেতা আরমান কোহলির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়েই হোক কি সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও ছবি পোস্ট করা নিয়ে। এ বারও একটা ছবি নিয়েই বিতর্কে তিনি, কাজলের বোন তানিশা মুখোপাধ্যায়।

    সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। সেখানে দেখা যাচ্ছে আয়নার সামনে টপলেস অবস্থায় রয়েছেন তানিশা। ছবির নীচে একটা ক্যাপশনও দিয়েছেন তিনি। সেখানে সবাইকে সুপ্রভাত জানিয়ে তানিশা লিখেছেন, ” যদি তুমি নিজের মধ্যে সুন্দর কিছু খুঁজে না পাও তাহলে একটা ভালো আয়না দরকার তোমার। আমার আয়নার কোনও কিছু বলার দরকার নেই।” এই ছবি পোস্ট করার পর থেকেই নেটিজেনদের রোষের মুখে পরেছেন তনুজা-তনয়া।

    View this post on Instagram

    If you can’t see anything beautiful about yourself get a better mirror?My mirror needs no explanation! G’Morning world! #staytrue #tanishaamukerji

    A post shared by Tanishaa Mukerji (@tanishaamukerji) on

    সোশ্যাল মিডিয়ায় তানিশাকে আক্রমণ করে কেউ বলেছেন, ‘এটাই দেখা বাকি ছিল। এ বার পৃথিবী ছাড়ার সময় হয়ে গেল।’ কেউ আবার বলেছেন, ‘আপনার কাছে এটা আশা করিনি। এটা আপনার ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মানায় না।’ কেউ আরও আক্রমণাত্মক হয়ে বলেছেন, ‘কিছু তো লজ্জা হওয়া উচিত। জামা-কাপড় খোলা ছাড়া কি সবার নজরে আসার আর কোনও উপায় নেই আপনার।’ একজন তো আবার সরাসরি তানিশাকে ‘পাগল’ বলেও সম্বোধন করে বলেছেন, ‘নিজের ত্বককে এত ভালোবাসলে সেটা নিজের জন্যই রাখুন। সবাইকে দেখানোর কোনও দরকার নেই।’

    যদিও এই আক্রমণের মুখে পড়ে পালটা কোনও মন্তব্য করেননি তানিশা। তবে কেউ কেউ তাঁর সমর্থনেও কথা বলেছেন। তাঁদের বক্তব্য, কেউ নিজের ব্যক্তিগত জীবনে কী করবেন সেটা তাঁর নিজের ব্যাপার। এ বিষয়ে কারও মন্তব্য করা ঠিক নয়। সেলিব্রিটিদের ছবি নিয়ে বারবার নেটিজেনদের এ ভাবে আক্রমণ করারও সমালোচনা করেছেন তাঁরা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More