শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৪

লাগাতার তিন বছর ‘নম্বর ওয়ান’ সলমন, ১৩’য় ছিটকে গেলেন কিং খান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হ্যাটট্রিক। লাগাতার তিন বছর ধরে ফোর্বসের তালিকায় সেরা ১০০ ভারতীয় সেলিব্রিটির মধ্যে প্রথম স্থান ধরে রাখলেন সলমন খান। গোটা বছরে বিনোদনের ক্ষেত্রে আয়ের উপর ভিত্তি করে শীর্ষস্থানে থাকলেন ভাইজান।

১ অক্টোবর ২০১৭ থেকে ১ অক্টোবর ২০১৮ পর্যন্ত সেলিব্রিটিদের আয়ের হিসেব করেই এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আয়ের নিরিখে প্রথমে রয়েছেন সলমন। তাঁর আয়ের পরিমাণ ২৫৩.২৫ কোটি টাকা। এই বছর টাইগার জিন্দা হ্যায় ও রেস থ্রি’র মতো দুটি সফল ছবি প্রকাশ পেয়েছে ৫২ বছরের সলমনের। এছাড়াও বেশ কয়েকটি ব্র্যান্ডের মুখ সলমন। আর তাই পরপর তিন বছর এই তালিকায় একে থাকলেন ভাইজান।

আরও পড়ুন কনে হওয়ার লাল-টুকটুকে ইচ্ছে, প্রিয়াঙ্কাকে তাই পরালেন সব্যসাচী

এক লাফে এই তালিকায় দুইয়ে উঠে এসেছেন ভারতের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ক্রিকেটের বাইরে বেশ কিছু ব্র্যান্ডের মুখ বিরাট। তাঁর নিজের পোশাক ও জুতোর ব্র্যান্ডও রয়েছে। আর তাই মূলত বিজ্ঞাপনের উপর নির্ভর করেই দুই নম্বরে কিং কোহলি। তাঁর বার্ষিক রোজগারের পরিমাণ ২২৮.০৯ কোটি টাকা। গত বছরের তুলনায় এই আয় ১১৬.৫৩ শতাংশ বেড়েছে।

তিন নম্বরে রয়েছেন বলিউডের খিলাড়ি অক্ষয় কুমার। বার্ষিক ১৮৫ কোটি টাকা রোজগার নিয়ে তাঁর। প্রত্যেক বছরই বেশ কিছু ছবি মুক্তি পায় অক্ষয় কুমারের। আর তাই একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ আয় তাঁর হয়েই থাকে। তাই প্রত্যেক বছরেই প্রথম পাঁচেই থাকেন খিলাড়ি।

কয়েকদিন আগেই বিয়ে সেরেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। কিন্তু বিয়ের আগেই মুক্তি পেয়েছিল এই বছরের অন্যতম বিতর্কিত ছবি পদ্মাবত। বক্স অফিসে চূড়ান্ত সফল হয়েছিল এই ছবি। আর মূলত এই ছবির উপর নির্ভর করেই চলতি বছরে দীপিকার আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১১২.৮ কোটি টাকা। তাঁর স্বামী রণবীর সিং অবশ্য রয়েছেন ৮ নম্বরে। তাঁর বার্ষিক আয়ের পরিমাণ ৮৪.৭ কোটি টাকা।

শুধু বিরাট কোহলিই নন, আরেক ক্রিকেটার রয়েছেন এই তালিকায়। টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া ও একদিনের এবং টি ২০ টিমে ব্রাত্য হয়ে যাওয়ার পরেও তাঁর ব্র্যান্ড ভ্যালু যে একটুও কমেনি তা আরও একবার দেখালেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। শুধুমাত্র এনডোর্সমেন্টের উপর নির্ভর করে হেসেখেলে সেরা ৫’এ থাকতে পারেন মাহি। চলতি বছরে তাঁর রোজগার ১০১.৭৭ কোটি টাকা।

এছাড়াও প্রথম দশের বাকি সেলিব্রিটিরা হলেন আমির খান ( বার্ষিক আয় ৯৭.৫০ কোটি টাকা ), অমিতাভ বচ্চন ( বার্ষিক রোজগার ৯৬.১৭ কোটি টাকা ), শচীন তেণ্ডুলকর ( বার্ষিক রোজগার ৮০ কোটি টাকা ) ও অজয় দেবগন ( বার্ষিক আয় ৭৪.৫০ কোটি টাকা )।

তবে অবাক করে দিয়েছেন বলিউডের বাদশা শাহরুখ খান। ২০১৭ সালে সলমনের পরেই ছিলেন শাহরুখ। কিন্তু এ বছর ৩৩ শতাংশ কমেছে তাঁর আয়ের পরিমাণ। দুই থেকে একেবারে ১৩ নম্বরে নেমে গিয়েছেন তিনি। কারণ এবছর একটিও ছবি মুক্তি পায়নি এসআরকে’র। আর তাই মাত্র ৫৬ কোটি টাকা বার্ষিক রোজগার নিয়ে এতটা পেছনে পৌঁছে গেছেন বলিউডের বাদশা।

তবে বাণিজ্যিক অ্যানালিস্টদের একাংশের মতে শাহরুখের মতো সুপারস্টারের কাছে এই সমস্যা সাময়িক। সামনেই মুক্তি পাচ্ছে জিরো। তারপরেও বেশ কিছু অন্যরকমের প্রজেক্ট আছে কিং খানের হাতে। আর তাই পরের বছর ফের প্রথম তিনেই হয়তো দেখা যাবে এসআরকে’কে। শাহরুখ অনুরাগীদেরও সেটাই আশা।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.