মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩

#মি টু বিতর্কের জের, হাউসফুল ছবিতে নানার পরিবর্তে রানা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল অনেকদিন ধরেই। এ বার নিশ্চিত করলেন স্বয়ং অভিনেতা। নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ ওঠার পর থেকেই শোনা যাচ্ছিল ‘হাউসফুল-৪’ ছবি থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে তাঁকে। নানার জায়গায় ছবিতে অভিনয় করার কথা হচ্ছিল দক্ষিণের অভিনেতা রানা ডাগ্গুবতীর। তবে নিশ্চিত খবর মিলছিল না কিছুতেই। এ বার বাহুবলী খ্যাত বল্লালদেব থুড়ি রানা নিজেই জানালেন, ‘হাউজফুল-৪’ ছবিতে অভিনয় করছেন তিনি।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে রানা জানিয়েছেন, “হায়দ্রাবাদের বাইরে কাজ করা সবসময়ই খুব আনন্দের। এর আগে এই ধরণের ছবিতে কাজ করিনি। অনেক নতুন অভিজ্ঞতার অপেক্ষায় রয়েছি।“ জানা গিয়েছে, ছবিতে এক গজল গায়কের চরিত্রে অভিনয় করবেন রানা। এর আগে বলিউড ছবি ‘বেবি’, ‘দ্য গাজি অ্যাটাক’, ‘দম মারো দম’, ‘ডিপার্টমেন্ট’ ছবিতে দেখা গিয়েছে রানা ডাগ্গুবতীকে।

মিটু: ১০০ কোটি টাকা দিলে কুকুরের সঙ্গে সেক্স করবে? বলেছিলেন সাজিদ, অভিযোগ অহনার

প্রসঙ্গত, নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন বহুদিন বলিউডের লাইমলাইট থেকে আড়ালে থাকা অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। #মি টু বিতর্কে নাম জড়িয়েছিল এই বর্ষীয়ান অভিনেতার। তনুশ্রী অভিযোগ জানিয়েছিলেন, ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শ্যুটিং সেটে তাঁর সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছিলেন নানা পাটেকর। নাচের স্টেপ শেখানোর অছিলায় আপত্তিজনক ভাবে নানা তাঁর শরীরে হাত দেন বলেও অভিযোগ করেন তনুশ্রী। তাঁর অভিযোগের তির ছিল ছবির পরিচালক, প্রযোজক এবং কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্যের বিরুদ্ধে। এমনকী তনুশ্রী মুখ খোলায় তাঁর গাড়ি ভাঙচুর করে নানা পাটেকরের ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক দলের গুণ্ডারাও। এমনটাই অভিযোগ জানিয়েছিলেন তনুশ্রী।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর থেকে হাওয়া গরম হয়েছে টিনসেল টাউনে। একের পর এক সামনে এসেছে বলিউডের তাবড় অভিনেতা-পরিচালক-প্রযোজকের নাম। তালিকা থেকে বাদ পড়েননি ‘বলিউডের সংস্কারী বাপু’ অলোক নাথও। ৩মি টু বাণে বেসালাম হয়ে গিয়েছে বি-টাউন। নড়ে গিয়েছে বহু মানুষের ভালোমানুষীর ভিত। মুখোশের আড়াল থেকে বেড়িয়ে এসেছে অনেক তারকার আসল রূপ।

আমিরের পথেই হাঁটলেন অক্ষয়, জানালেন যৌন হেনস্থায় অভিযুক্ত সাজিদের সঙ্গে কাজ করবেন না

এ দিকে ‘হাউসফুল-৪’ ছবির পরিচালক সাজিদ খানের বিরুদ্ধেও উঠেছে যৌন হেনস্থার অভিযোগ। #মি টু বিতর্কে সাজিদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছেন বলিউডের বহু অভিনেত্রী। বিপাশা বসু থেকে অহনা কুমার সরব হয়েছে সকলেই। এমনকী সাজিদের হাতে কাস্টিং কাউচেরও শিকার হয়েছে বহু উঠতি অভিনেত্রী এবং মডেল। এমনটাই অভিযোগ রয়েছে ফারহা খানের ভাইয়ের বিরুদ্ধে। #মি টু বিতর্কে সাজিদের নাম সামনে আসায় ছবি থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেন হাউজফুল ফ্র্যাঞ্চাইজির অন্যতম প্রধান অভিনেতা অক্ষয় কুমার। অক্ষয়ের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে ছবি ছেড়ে দিতে চান রীতেশ দেশমুখও। এরপরই পরিচালক সাজিদ খান ‘হাউসফুল-৪’ ছবির পরিচালনার দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.