রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২

মাদাম তুসোয় অভাবনীয় কাণ্ড, প্রিয়াঙ্কাকে দেখতে অবিকল প্রিয়াঙ্কার মতোই!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মোমের মূর্তি! নাকি আসল মানুষ! এ যে একদম এক।

সম্প্রতি লন্ডনের মাদাম তুসোয় বসেছে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মোমের মূর্তি। আর সেটা দেখে চমকে উঠেছেন সকলেই। এ কী! এ যে হুবহু এক। এক্কেবারে সেম টু সেম।

বলে না দিলে বোঝার উপায় নেই যে এটা মোমের তৈরি। একঝলক দেখলে মনে হবে বসে রয়েছেন স্বয়ং অভিনেত্রী। সেই একই হেয়ার স্টাইল, গালে টোল ফেলা হাসি, চোখে আত্মবিশ্বাসীর চাউনি। আসল-নকলের ফারাক বোঝার উপায় নেই। মোমের মূর্তি না কি জীবন্ত প্রিয়াঙ্কা, তা নিয়েই বিস্তর জল্পনা চলছে নেট দুনিয়ায়। 

তবে মাদাম তুসো কর্তৃপক্ষ এবং অভিনেত্রী নিজে—–দু’জনেই জানিয়েছেন, এটা মোমেরই প্রিয়াঙ্কা। আসল নন। যে শিল্পী প্রিয়াঙ্কার এমন নিখুঁত মূর্তি বানিয়েছেন, তাঁর প্রশংসাতেই এখন পঞ্চমুখ নেটিজেনরা। ২০১৮ সালে পিগি চপসের নিউ ইয়র্কের বাড়িতে গিয়েই সিটিং সেশন সেরে ফেরেছিলেন মাদাম তুসোর বিশেষ টিম। তারপর থেকেই ছিল অপেক্ষা। অবশেষে লন্ডনের মাদাম তুসোয় বসল প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মোমের মূর্তি। অনেকেই বলছেন, “ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপের উন্মাদনার পাশাপাশি উত্তাপ ছড়াবে পিগি চপসের এই নিখুঁত মূর্তিও।” 

প্রিয়াঙ্কার এই মূর্তির পরনে রয়েছে, গোল্ডেন গ্লিটার ওয়েস্টার্ন আউটফিট। গলায় রয়েছে ছিমছাম হাল্কা ডিজাইনের নেকলেস। হাতে শোভা পাচ্ছে জ্বলজ্বলে এনগেজমেন্ট রিং। মূর্তি এতটাই নিখুঁত যে হাতের নেলপলিশও বোঝা যাচ্ছে একদম পারফেক্টলি। শিল্পীর নিপুণ হাতের ছোঁয়ায় লন্ডনের মাদাম তুসোয় মোমের মূর্তিতেও জীবন্ত হয়ে উঠেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। 

এর আগে অবশ্য বহু বলিউড তারকার মূর্তিই বসেছে লন্ডনের মাদাম তুসোয়। কিন্তু সেক্ষেত্রে বলে না দিলে বোঝার উপায় থাকত না যে সেটা ওই অভিনেতারই মোমের মূর্তি। এই তালিকায় রয়েছেন স্বয়ং বিগ বি-ও। অমিতাভের মোমের মূর্তি দেখে সে সময় অনেকেই বলেছিলেন, “শিল্পের ডিজাস্টার হয়েছে।” এ ছাড়াও হালফিলে মাধুরী দীক্ষিত কিংবা শাহরুখ খান বা ঐশ্বর্যা রাইয়ের মূর্তিতেও বেশ কিছু খামতি একেবারে সাদা চোখেই বোঝা গিয়েছে। এমনকী মাস্টার ব্লাস্টার শচিনের মূর্তি দেখেও মুষড়ে পড়েছিলেন ক্রিকেট ঈশ্বরের ফ্যানরা। মোট কথা এঁদের সকলের ক্ষেত্রেই লোকজনকে বলে বুঝিয়ে দিতে হয়েছিল যে, ওটা তাঁরই মোমের মূর্তি। 

কিন্তু প্রিয়াঙ্কার ক্ষেত্রে হয়েছে ঠিক উল্টোটা। আসল-নকলের ফারাক বুঝতে সময় লাগছে জনতার। বরং প্রিয়াঙ্কাকে দেখতে অবিকল জীবন্ত প্রিয়াঙ্কার মতোই হয়েছে। শিল্পী যে ভীষণ যত্ন নিয়ে পিগি চপসের মোমের মূর্তি বানিয়েছেন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কিছুদিন আগে মাদাম তুসোয় বসেছে দীপিকা পাড়ুকোনের মোমের মূর্তি। সে ক্ষেত্রে অবশ্য লোককে বলে বুঝিয়ে দিতে হয়নি। বরং দীপিকার মূর্তিতেই কিছুটা অংশে ছিল এই ‘সেম টু সেম’ ফিল। 

এর আগে অবশ্য নিউ ইয়র্কের মাদাম তুসোতেও বসেছিল প্রিয়াঙ্কার ছবি। তবে সে ক্ষেত্রে আসল প্রিয়াঙ্কা আর মোমের মূর্তির মধ্যে বেশ ভালোভাবেই ফারাক বোঝা গিয়েছিল। কিন্তু এ বার একেকবারে বোকা বনে গিয়েছেন অভিনেত্রীরা ফ্যানরা। আসল প্রিয়াঙ্কা আর মোমের মূর্তির মধ্যে তফাত খুঁজতে বেশ খানিকটা সময় লেগেছে অভিনেত্রীর ভক্তদের। তবে পিগি চপসের এমন মূর্তি দেখে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত তাঁরা। বেজায় খুশি প্রিয়াঙ্কা নিজেও। 

Comments are closed.