সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩

অজয়ের থেকে ডিভোর্স চেয়েছিলেন কাজল!

  • 30
  •  
  •  
    30
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বলিউডের সফল জুটির মধ্যে অন্যতম কাজল এবং অজয় দেবগণ। কেরিয়ার তুঙ্গে থাকাকালীনই অজয়ের সঙ্গে বিয়েটা সেরে নিয়েছিলেন নায়িকা। অনেকেই সে সময় কাজলের এই সিদ্ধান্তে বেশ না-খুশ ছিলেন। হৃদয় ভেঙেছিল বহু ভক্তেরও। তবে কাজল যে ভুল সিদ্ধান্ত নেননি তা প্রমাণ করেছে সময়ই।

কিন্তু কাজল এবং অজয়ের সম্পর্কের রাস্তা যে একদম মসৃণ ছিল তা নয়। এমনকী অজয়ের থেকে নাকি একবার ডিভোর্সও চেয়েছিলেন কাজল! বলিউডে এমনিতেই নায়কদের সঙ্গে নায়িকাদের সম্পর্কের মুখরোচক গল্প সবসময়ই শোনা যায়। আর এই দিক থেকে তালিকায় শীর্ষে ছিলেন অজয়। একসময় করিশমা কাপুরের সঙ্গেও নাম জড়িয়েছিল এই অভিনেতার। বাদ যাননি রবিনা ট্যান্ডনও। তবে এসব নিয়ে বিশেষ মাথা ঘামাননি কাজল।

কিন্তু কঙ্গনা রানাওয়াতের সঙ্গেও নাকি সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন অজয় দেবগণ। ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বই’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময়েই ঘনিষ্ঠ হন অজয়-কঙ্গনা।  কানাঘুষো শোনা যায় সেই সম্পর্ক কেবল বন্ধুত্বের থেকে খানিকটা বেশিই ছিল। এমনকী বি-টাউনে অনেকেই বলেন, ‘তেজ’ কিংবা ‘রাসকেলস’-এর মতো ছবিতে অজয়ই নাকি পরিচালকদের বারবার বলতেন কঙ্গনাকে সুযোগ দেওয়ার জন্য। অনেকক্ষেত্রেই পরিচালকদের পছন্দ না হলেও কেবলমাত্র অজয়ের অনুরধেই নাকি কঙ্গনাকে সুযোগ দিতে হতো।

হিমাচল গার্লের সঙ্গে স্বামীর এই ঘনিষ্ঠতাই নাকি মেনে নিতে পারেননি অজয় ঘরণী। সরাসরি নাকি বিচ্ছেদের প্রস্তাব দেন কাজল। সবদিক সামাল দিতেই নাকি এরপর থেকে কঙ্গনার সঙ্গে দূরত্ব বজায় রেখে চলতেন অজয়। সম্ভবত এই কারণেই ওই ছবির পর আর স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা যায়নি দুই অভিনেতাকে।

সূত্রের খবর, একটি ইন্টারভিউতে কঙ্গনা নাকি নিজেই জানিয়েছিলেন যে ‘ওয়ান্স আপন এ টাইম ইন মুম্বই’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময়েই অজয়ের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। তবে পরবর্তী সময়ে অন্য একটি সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা নাকি বলেন, “বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া একদমই ভুল।“

Comments are closed.