বুধবার, জুন ১৯

“লড়াই সহজ ছিল না, সকলের প্রার্থনাই আমাদের শক্তি দিয়েছে”, ইরফানের জীবনযুদ্ধ নিয়ে অকপট স্ত্রী সুতপা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ক্যানসার। আক্ষরিক অর্থেই মারণরোগ। যাঁর উপর এই রোগ একবার থাবা বসায়, তাঁর পরিবারকেও মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত করে দেয়। ঠিক তেমনটাই হয়েছিল ইরফান খানের জীবনেও। জীবনযুদ্ধের কঠিন লড়াইয়ে প্রতি মুহূর্তে অভিনেতার পাশে ছিলেন তাঁর স্ত্রী সুতপা শিকদার। কতটা ভয়ঙ্কর ছিল সেই সব দিন, এ বার তা নিয়েই খোলামেলা চিঠি লিখলেন সুতপা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সুতপা লিখেছেন, “গতবছরটা আমাদের জীবনের দীর্ঘতম বছর ছিল। একই সঙ্গে যন্ত্রণা এবং আশা দিয়ে কখনও সময়ের পরিমাপ করা যায় না। তবে বন্ধু-বান্ধব এবং আত্মীয়দের প্রার্থনায় আমরা নতুন করে জীবন শুরু করেছি। এটা অবিশ্বাস্য। সকলকে ধন্যবাদ। আমি অনিশ্চিত শব্দটার মানে খুব ভালো ভাবে বুঝতে পেরেছি। সঙ্গে এটাও বুঝেছি যে ওঁর জন্য সবাই মন থেকে প্রার্থনা করেছেন। সকলের নাম আমি জানি না। আলাদা করে সকলকে ধন্যবাদ দিতে না পারার জন্য আমি দুঃখিত। তবে আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকেই আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আপনাদের প্রার্থনাই আমাদের শক্তি দিয়েছে। আপনারা ঈশ্বরের সমান।”

২০১৮ সালের মার্চ মাসে আচমকা ঝড়ের মতো আছড়ে পড়ে ইরফান খানের অসুস্থতার খবর। অভিনেতা নিজেই জানান বিরল এবং জটিল এন্ডোক্রিন টিউমারে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। পরিবারের সঙ্গে সুদূর লন্ডনে পাড়ি দেন চিকিৎসার জন্য। চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতেই দেশে ফিরেছেন ইরফান। ফ্যানদের অনুমান সত্যি করেই যোগ দিয়েছেন শ্যুটিংয়েও। ইতিমধ্যেই উদয়পুরে শুরু হয়েছে ইরফান খানের আগামী ছবি ‘হিন্দি মিডিয়াম’-এর সিক্যুয়েল ‘আংরেজি মিডিয়াম’-এর শ্যুটিং। টুইট করে অভিনেতা নিজেই জানিয়েছেন, “সবাইকে এন্টারটেন করতে আবার আসছেন।” এ বার ঘসেটিরাম মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের মালিক চম্পকজি’র চরিত্রে অভিনয় করছেন ইরফান।

Comments are closed.