শনিবার, মার্চ ২৩

জল্পনার অবসান, ক্যানসারের সঙ্গে লড়াইয়ের মাঝেই ভারতে ফিরেছেন ইরফান খান!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশে ফিরেছেন অভিনেতা ইরফান খান। এমনটাই জানিয়েছেন সংবাদসংস্থা IANS।

অনেকদিন ধরেই জল্পনা চলছিল। মাঝে বেশ কয়েকবার শোনা গিয়েছিল লন্ডনের চিকিৎসার পাট চুকিয়ে এ বার নাকি ভারতে ফিরবেন ইরফান। শ্যুটিং শুরু করবেন ‘হিন্দি মিডিয়াম-২’-এর জন্য। এমনকী শোনা গিয়েছিল, মুম্বইয়ের হাসপাতালেই নাকি চলবে তাঁর চিকিৎসা। তবে IANS-সূত্রে খবর, এই তথ্য মোটেও ঠিক নয়। অভিনেতা দেশে ফিরেছেন ঠিকই। কিন্তু তাঁকে কবে শ্যুটিং ফ্লোরে দেখা যাবে সে বিষয়ে এখনও কিছুই জানা যায়নি।

মাঝে আবার শোনা গিয়েছিল, ২০১৮ সালের দিওয়ালির আগেই নাকি ভারতে ফিরবেন অভিনেতা। পরিবারের সঙ্গে এ দেশেই নাকি কাটাবেন দিওয়ালি, এমনটাই রটেছিল। তবে সে সব জল্পনাতে জল ঢেলে দিয়েছিলেন স্বয়ং ইরফানই। সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, এখনই দেশে ফেরার কোনও প্ল্যান নেই। বরং বাকি চিকিৎসার জন্য আপাতত লন্ডনেই থাকছেন তিনি। জানিয়েছিলেন, বেশ কিছু টেস্ট হওয়া বাকি রয়েছে। সেগুলোর রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন।

তবে এ বার IANS-এর রিপোর্টে বলা হয়েছে ইতিমধ্যেই নাকি দেশে ফিরে গিয়েছেন ইরফান। প্রিয় অভিনেতার ভারতে ফেরার খবরে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত ফ্যানরা। ইরফানকে এক ঝলক দেখার জন্য অপেক্ষা করছেন অভিনেতার অনেক অনুরাগীই। এর মধ্যেই ‘হিন্দি মিডিয়াম’ ছবির প্রযোজকের বক্তব্য ইরফানের এ দেশে ফেরার জল্পনাকে আর একটু উস্কে দিয়েছে। ছবির প্রযোজক দীনেশ ভিজান জানিয়েছেন, দিন পনেরোর মধ্যেই ‘হিন্দি মিডিয়াম’-এর সিক্যুয়েলের কথা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করবেন তিনি। তবে সূত্রের খবর, আপাতত পিছিয়ে গিয়েছে ইরফানের দুটো ছবির কাজ। সুজিত সরকারের পরিচালনায় ‘উধম সিংয়ের বায়োপিক’। এবং বিশাল ভরদ্বাজের পরিচালনায় দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে ইরফানের প্রথম ছবি।

২০১৮ সালের মার্চ মাসে নিউরোএন্ডোক্রিন টিউমারে আক্রান্ত হন অভিনেতা ইরফান খান। চিকিৎসার জন্য সপরিবারে পাড়ি দেন লন্ডনে। সেখানে থাকাকালীনই রিলিজ হয় ইরফানের শেষ বলিউড ফিল্ম ‘কারওয়াঁ’।

Shares

Comments are closed.