রবিবার, মার্চ ২৪

“শ্যুটিং সেটে উনি দেবদূতের মতো”, #মিটু বিতর্কে রাজকুমার হিরানির পাশে দাঁড়ালেন ‘রাজু রস্তোগি’-র মা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘থ্রি ইডিয়টস’-এর রাজু রস্তোগির চরিত্র বহুদিন মনে রাখবেন দর্শকরা। তবে সরমন যোশীর অনবদ্য অভিনয়ের পাশাপাশি তাঁর মায়ের চরিত্রে অভিনয় করা অমনদীপ ঝা-ও নজর কেড়েছিলেন ফিল্ম ক্রিটিকদের। এ বার এই অমনদীপই রাজকুমার হিরানির পাশে দাঁড়ালেন।

সদ্যই যৌন হেনস্থার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন বলিউডের প্রথম সারির এই পরিচালক। তাঁর গায়েও এঁটে গিয়েছে #মিটু-র তকমা। কিন্তু পছন্দের পরিচালকের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিওগ মানতে নারাজ অমনদীপ। তাঁর কথায়, “শ্যুটিং সেটে উনি (পড়ুন রাজকুমার হিরানি) একজন দেবদূতের মতো। কারও সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা তো দূর, কোনওদিন অশালীন হাসি-ঠাট্টও করতে দেখিনি ওঁকে।”

শুরুটা হয়েছিল নানা পাটেকরকে দিয়ে। তারপর #মিটু ঝড়ে খড়কুটোর মতো মাঝে মাঝেই ভেসে উঠেছে বলিউডের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তির নাম। বাদ পড়েননি ‘সংস্কারী বাপু’ অলোক নাথও। এ বার সেই তালিকাতেই নাম উঠেছে রাজকুমার হিরানির। অভিনেত্রী অমনদীপ জানিয়েছেন, “সব শোনার পর হতবাক হয়ে গিয়েছে। ওঁকে আমি অনেকদিন ধরে চিনি। উনি এমনটা করেছেন ভাবতেই পারছি না। এই অভিযোগ আমার বিশ্বাস হয় না।” তবে এর পাশাপাশি অমনদীপ জানিয়েছেন, তিনি অভিযোগকারিণীকে চেনেন না। তাই কে ঠিক বা কে ভুল তার বিচার তিনি করতে পারবেন না। তবে তিনি বলেন, “ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি, যিনি নিরপরাধ তিনি যেন শাস্তি না পান।”

রাজকুমার হিরানির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন তাঁরই অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর। প্রযোজক বিধু বিনোদ চোপড়াকে ই-মেলের মাধ্যমে নিজের অভিযোগ জানিয়েছেন ওই মহিলা। পরিচালক ছাড়াও অভিযুক্তের তালিকায় রয়েছেন, ফিল্ম ক্রিটিক অনুপমা চোপড়া, বিধু বিনোদ চোপড়ার বোন শেলী চোপড়া এবং স্ক্রিন রাইটার অভিজাত যোশী। তাঁর দাবি, ২০১৮ সালের মার্চ থেকে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়েই তাঁর সঙ্গে ঘটেছে এই অপ্রীতিকর ঘটনা। দীর্ঘ ৬ মাস ধরে রাজকুমার হিরানি তাঁকে নানা ভাবে হেনস্থা করেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন ওই মহিলা। ২০১৮ সালের ৩ নভেম্বর করা ই-মেলে মহিলা লিখেছেন, প্রথমবার তাঁকে হেনস্থা হতে হয় ২০১৮-র ৯ এপ্রিল। মহিলা বলেন, “দীর্ঘ ছ’মাস ধরে আমার শরীর, মন এবং আত্মা হেনস্থার শিকার হয়েছে।”

তবে নিজের আইনজীবী আনন্দ দেশাইয়ের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের জবাব দিয়েছেন রাজকুমার হিরানি। দেশাই জানিয়েছেন, তাঁর মক্কেল এ ধরনের কোনও কাজ করেননি। সম্পূর্ণ মিথ্যে কথা বলে তাঁর মক্কেলকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন হিরানির আইনজীবী আনন্দ দেশাই।

Shares

Comments are closed.