মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯

থমথমে কাশ্মীর, বন্ধ হয়ে যেতে পারে আলিয়া-সিদ্ধার্থের ছবির শ্যুটিং

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কাশ্মীর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পর থেকেই থমথমে উপত্যকা। কাশ্মীরের বেশিরভাগ জায়গাতেই জারি হয়েছে কারফিউ। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা। বন্ধ স্কুল-কলেজও। এই পরিস্থিতিতে প্রভাব পড়েছে বিনোদনের দুনিয়াতেও। কাশ্মীরে সম্প্রতি বেশ কিছু হিন্দি ছবির শ্যুটিং হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে তা সম্ভব নয়, এমনটাই জানিয়েছেন ছবির নির্মাতারা। সেরকম হলে শ্যুটিং এখন বন্ধ রেখে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তারপর যাওয়ার কথা ভাবছেন তাঁরা।

অভিনেতা সিদ্ধার্থ মালহোত্র বর্তমানে তাঁর ‘শেরশাহ’ ছবির শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত। বেশিরভাগ অংশের শ্যুটিং হয়ে গিয়েছে। তার মধ্যে কয়েকদিন আগে পালামপুরেও হয়েছে কিছু অংশের শ্যুটিং। বাকি অংশের শ্যুটিং হওয়ার কথা ছিল কার্গিলে। কিছুদিন আগে সিদ্ধার্থ নিজেই সেই কথা জানিয়েছিলেন। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে কাশ্মীরে শ্যুটিং হওয়া সম্ভব কিনা তা নিয়েই চিন্তায় নির্মাতারা।

কাশ্মীরে ‘হাইওয়ে’, ‘রাজি’র মতো একাধিক ছিবির শ্যুটিং করেছেন অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। এই মুহূর্তে উটিতে ‘সড়ক ২’-এর শ্যুটিং করছেন তিনি। মুম্বই ও উত্তরাখণ্ডে কিছু অংশের শ্যুটিং হওয়ার পর কাশ্মীরে যাওয়ার কথা তাঁর। সেখানে এক গডম্যানের আশ্রমে শ্যুটিং হওয়ার কথা।

ছবির নির্মাতাদের তরফে জানানো হয়েছে, কাশ্মীরে আলিয়ার হ্যাটট্রিক হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। ভাট ও করণ জোহর প্রোডাকশন এই মুহূর্তে কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় ব্যস্ত। সেরকম হলে শ্যুটিং-এর লোকেশন পরিবর্তন হতে পারে বলেই জানা গিয়েছে।

তবে এই পরিস্থিতি কিন্তু বলিউডে নতুন নয়। বেশ কয়েক বছর ধরে কাশ্মীরের পরিস্থিতি অশান্ত। তাই বছর কয়েক আগেও যেভাবে হিন্দি ছবিতে কাশ্মীরকে দেখা যেত, সেরকম এখন দেখা যায় না। তার মধ্যেই মাঝেমধ্যেই দু-একটি ছবির শ্যুটিং হয় ভূস্বর্গে। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিতে চাইছেন না নির্মাতারা। আর এই শ্যুটিং বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কিন্তু প্রভাব পড়ছে কাশ্মীরের পর্যটন ও সাধারণ মানুষের রুজি-রুটিতেও।

Comments are closed.