মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

হিন্দি-তামিল-তেলুগু, তিন ভাষায় সেলুলয়েডে আসছে ‘রামায়ণ’, বাজেট ৫০০ কোটি!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সেলুলয়েডে আসছে ‘রামায়ণ’। তিনটি পার্টে রিলিজ হবে ছবি। পুরোটাই একদম ঝাঁ-চকচকে থ্রি-ডি মুভি। আর বাজেট কেবল বিগ নয়, একেবারে পিলে চমকে যাওয়ার মতো——৫০০ কোটি। হিন্দি, তামিল এবং তেলুগু, এই তিন ভাষায় বিগ স্ক্রিনে রিলিজ হবে ‘রামায়ণ’। তবে কোন কোন অভিনেতা এই ছবিতে অভিনয় করবেন সে ব্যাপারে কিছুই জানা যায়নি। ছবির পরিচালক এবং প্রযোজকরা ‘রামায়ণ’-এর কাস্টিং নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন।

সিনেমার নাম থেকে বাজেট, সবই যখন হেভিওয়েট তখন ছবির সঙ্গে যাঁরা যুক্ত হবেন তাঁরাও যে সেই মাপেরই হবেন এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। ‘রামায়ণ’-এর সঙ্গে এ বার নাম জুড়তে চলছে বেশ কিছু তাবড় দক্ষিণী তারকার। থাকছেন বলিউডের নামিদামীরাও। তেলুগু ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম বিখ্যাত অল্লু অরবিন্দ, ফ্যান্টম ফিল্মসের প্রতিষ্ঠাতা মধু মান্টেনা এবং প্রাইম ফোকাস স্টুডিও-র প্রতিষ্ঠাতা নমিত মালহোত্রা—–জানা গিয়েছে, এই তিনটি প্রোডাকশন হাউসের কর্তারা একসঙ্গে প্রযোজনা করবেন বিগ বাজেটের ‘রামায়ণ’। পরিচালনায় থাকবেন দুই বলিউড পরিচালক নীতীশ তিওয়ারি এবং রবি উদয়ওয়ার। ইতিমধ্যেই ‘দঙ্গল’ ছবির জন্য নীতীশ এবং শ্রীদেবীর কামব্যাক ফিল্ম ‘মম’-এর দৌলতে রবি বি-টাউনের পরিচিত নাম।

তবে আপাতত শুধু কথাবার্তা এবং আলোচনাই শুরু হয়েছে। নির্মাতাদের আশা, আগামী বছর অর্থাৎ ২০২০-তেও ফ্লোরে আসবে এই ছবি। শুরু হবে শ্যুটিং। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে, ছবির কাস্টিংয়েও থাকবে বড় চমক।

নীতীশ এবং রবি। দু’জন পরিচালকই বলছেন, এ ছবির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে তাঁদের ছোটবেলার নানান স্মৃতি। রয়েছে ভরপুর আবেগও। নীতীশ বলেছেন, “ছোটবেলা থেকে বাড়ির বড়দের সঙ্গে, বিশেষ করে রামলীলা দেখতে যেতাম। প্রতিবার সীতার অপহরণের দৃশ্যটা আমায় খুব আবেগপ্রবণ করে দিত।” আর রবির কথায়, “ছোট থেকে ঠাকুমার কাছে রামায়ণের গল্প শুনেই তো বড় হয়েছি। এ বার সেই গল্পগুলোকেই পর্দায় তুলে ধরব। আবেগ তো আছেই। ছোটবেলার স্মৃতি রোমন্থনের দারুণ সুযোগ এটা।”

কিন্তু ছবির নাম যেখানে ‘রামায়ণ’ সেখানে ভয় লাগছে না!

পরিচালকদের শরীরী ভাষাই বলে দিচ্ছে আসন্ন প্রোজেক্ট নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী তাঁরা। আশাবাদীও বটে। বিগ বাজেটের ছবিতে ব্যবহার হবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। খরচের পাশাপাশি সময়ও লাগবে বেশ। কিন্তু প্রযোজক এবং পরিচালকরা হাত খুলে খেলতে চাইছেন এই প্রোজেক্টে। অনুমান, ২০২১ সালেই সিলভার স্ক্রিনে রিলিজ করবে এই সিনেমা।

ঐতিহাসিক পুরাণ-গাথা নিয়ে বহুদিন ধরেই ছবি বানানো হচ্ছে বলিউডে। মাঝে শোনা গিয়েছিল সিলভার স্ক্রিনে রিলিজ করবে ‘মহাভারত’-ও। ছবির কাস্টিং নিয়েও নানান জল্পনা চলেছিল বি-টাউনের অন্দরমহলে। ফিল্ম ফ্রিকদের মধ্যেও দেখা গিয়েছিল উন্মাদনা। সেই রেশ কাটার আগেই এলো নতুন খবর। ‘মহাভারত’-এর বাজেট ১ হাজার কোটি টাকা। কাস্টিংয়েও রয়েছে ধামাকা। তবে ‘রামায়ণ’ এই ছবির কাস্টিংকে কতটা টেক্কা দিতে পারবে, এখন সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছেন সিনেমা প্রেমীরা।

Comments are closed.